kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ নভেম্বর ২০১৯। ৩০ কার্তিক ১৪২৬। ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

কেরানীগঞ্জে গৃহবধূর লাশ

হত্যার অভিযোগ পরিবারের

কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি   

১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কেরানীগঞ্জ মডেল থানাধীন কলাতিয়া ইউনিয়নের রুহিতপুর জেনারেল হাসপাতাল থেকে গতকাল শনিবার সূচনা আক্তার (২২) নামে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সূচনার পরিবারের দাবি, যৌতুকের টাকা দিতে না পারায় তাঁদের মেয়েকে হত্যার পর আত্মহত্যা বলে চালানোর জন্য হাসপাতালে নিয়ে যায় শ্বশুরবাড়ির লোকজন। ঘটনার পর থেকে সূচনার শ্বশুরবাড়ির লোকজন পলাতক।

সূচনার মায়ের অভিযোগ, তিন বছর আগে সুবর্ণশুর গ্রামের বাসিন্দা রুহুল আমিনের সঙ্গে বিয়ে হয় সূচনার। এর পরপরই রুহুল দক্ষিণ আফ্রিকায় চলে যান। মাস ছয়েক আগে রুহুল সূচনাকে ফোন দিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকায় দোকান নেবে বলে জানান। এ সময় তিনি সূচনাকে বাড়ি থেকে ১০ লাখ টাকা আনতে বলেন। কিন্তু সূচনা বাবার বাড়ি থেকে ওই টাকা আনতে অস্বীকৃতি জানালে শ্বশুরবাড়ির সবাই মিলে তাঁর ওপর নির্যাতন শুরু করে। এমনকি তারা সূচনাকে এক বছর বাড়িতেও আসতে দেয়নি। তিনি আরো বলেন, ‘গতকাল দুপুরে মেয়ের শ্বশুরবাড়ি থেকে একটি ছোট ছেলে এসে আমাদের জানায়, সূচনা গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। তার লাশ রুহিতপুর হাসপাতালে রাখা আছে। পরে আমরা হাসপাতালে গিয়ে সূচনার মৃতদেহ দেখতে পাই।’

কেরানীগঞ্জ মডেল থানার এসআই বিপুল জানান, রুহিত জেনারেল হাসপাতাল থেকে সূচনার লাশ উদ্ধার করা হয়। লাশটি ময়নাতদন্তের জন্য স্যার সলিমুল্লাহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা