kalerkantho

মঙ্গলবার । ১২ নভেম্বর ২০১৯। ২৭ কার্তিক ১৪২৬। ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

রূপগঞ্জে স্কুলছাত্র জিসান হত্যা

আতঙ্কিত পরিবারের পক্ষে পুলিশের মামলা, গ্রেপ্তার ৩

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি   

১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে নবম শ্রেণির ছাত্র জিসান হত্যার ঘটনায় পরিবারের লোকজন ভয়ে মামলা না দেওয়ায় পুলিশ বাদী হয়ে হত্যা মামলা দায়ের করেছে। গত শুক্রবার ভুলতা ফাঁড়ির উপপরিদর্শক রোকনুজ্জামান বাদী হয়ে ১৭ জনের নাম উল্লেখ এবং আরো চার-পাঁচজনকে অজ্ঞাতপরিচয় আসামি করে মামলাটি দায়ের করেন। এরই মধ্যে মামলার এজাহারভুক্ত তিন আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তারকৃতরা হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো উপজেলার গোলাকান্দাইল দক্ষিণপাড়া এলাকার মনসুর আহমেদের ছেলে জাহিদ হাসান বিদ্যুৎ, মফিজুল ইসলামের ছেলে ইকরাম ও মৃত মোতালেব মিয়ার ছেলে পারভেজ। বাকি আসামিরা হলো সিয়াম, শাওন, আল-আমিন, সাকিব, ইয়ামিন, মাসুম, মোস্তাকিম, রোহান, নিরব, আরমান, ইমন, হৃদয় ও ফাহিম। একজনের নাম জানা যায়নি।

রূপগঞ্জ থানার ওসি মাহমুদুল হাসান জানান, গত ২৫ আগস্ট বেশ কয়েকটি জাতীয় পত্রিকায় ‘রূপগঞ্জে খুনিদের ভয়ে এলাকাছাড়া নিহতের পরিবার’ শিরোনামে একটি সংবাদ ছাপা হয়। এ খবরে পুলিশ ঘটনা অনুসন্ধানের জন্য ঘটনাস্থলে গিয়ে এলাকাবাসীকে জিজ্ঞাসাবাদ করে। জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, গোলাকান্দাইল এলাকার সৌরভ, সিয়াম ও শাহিনের সঙ্গে শিক্ষার্থী জিসানের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। এ নিয়ে আসামিরা জিসানকে শায়েস্তা করার পাঁয়তারা করে আসছিল।

এই বিরোধের জের ধরে গত ২২ আগস্ট সৌরভ ও সিয়ামসহ অন্যরা মিলে স্কুল শিক্ষার্থী জিসান ও তার বন্ধু শুভকে বাড়ি থেকে ডেকে নেয়। তারা দুজনকে উপজেলার গোলাকান্দাইল বালুর মাঠে এনে লোহার রড ও লাঠি দিয়ে গুরুতর আহত করেন। একপর্যায়ে আসামিরা জিসানের বন্ধু শুভকে পিটিয়ে তাড়িয়ে দেয় এবং জিসানকে পেটানোর পর মারা গেছে মনে বালুর মাঠে ফেলে রেখে চলে যায়। স্থানীয়রা জিসানকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথেই তার মৃত্যু হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা