kalerkantho

চাঁদপুরে শিক্ষিকাকে হত্যা

দুই মাদকসেবী ধর্ষণের পর হত্যা করে জয়ন্তীকে

চাঁদপুর প্রতিনিধি   

১৯ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চাঁদপুরে স্কুল শিক্ষিকা জয়ন্তী চক্রবর্তী (৪৮) হত্যাকাণ্ডের ব্যাপারে পুলিশ গতকাল রবিবার জানায়, দুই মাদকসেবী তাঁকে একা পেয়ে ধর্ষণের পর হত্যা করে। গতকাল বিকেলে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) চাঁদপুর জেলা কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানিয়েছে।

পিবিআইয়ের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ইকবাল জানান, ইয়াবাসক্ত দুই যুবক জামাল হোসেন (২৮) ও আনিছুর রহমান (৩২) জয়ন্তীকে বাসায় একা পেয়ে ধর্ষণের পর গলা কেটে হত্যা করে। জয়ন্তী ষোলঘর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সরকারি শিক্ষক ছিলেন। তাঁর তিন সন্তান। স্বামী অলক গোস্বামী পানি উন্নয়ন বোর্ডের সাবেক কর্মকর্তা।

ওই দুই যুবকের স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে মোহাম্মদ ইকবাল ঘটনা সম্পর্কে জানান, ক্যাবল টিভির লাইন মেরামতের কথা বলে জামাল ও আনিছুর গত ২১ জুলাই চাঁদপুর শহরের ষোলঘর ওয়াপদা কলোনিতে জয়ন্তীর বাসায় ঢোকে। বাসায় একা পেয়ে তাঁকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে ওই দুজন। ধর্ষিতা ঘটনা প্রকাশ করে দেবে—এমন কথা শোনার পর দুজন ধারালো চাকু দিয়ে গলা কেটে জয়ন্তীকে হত্যা করে। পরে তারা আলামত নষ্ট করার জন্য ঘটনাস্থল পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলে।

ঘটনার দুই দিনের মধ্যে জামাল ও আনিছুরকে আটক করে চাঁদপুর সদর মডেল থানা পুলিশ। পরে মামলাটি পিবিআইয়ের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

মন্তব্য