kalerkantho

রবিবার। ৩ মাঘ ১৪২৭। ১৭ জানুয়ারি ২০২১। ৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

বিটিসিএল ফোনের লাইন রেন্ট বাতিল হচ্ছে ১৬ আগস্ট

১৫০ টাকায় কথা বলা যাবে পুরো মাস

বিশেষ প্রতিনিধি   

৮ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সাত বছর আগে সরকারি ল্যান্ড ফোন অপারেটর বিটিসিএলের গ্রাহকদের ওপর হঠাৎ করে চাপিয়ে দেওয়া বর্ধিত মাসিক লাইন রেন্ট অবশেষে বাতিল হচ্ছে। বিটিসিএল টেলিফোন সেবা আরো জনবান্ধব ও সময়োপযোগী করার লক্ষ্যে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সে সুবাদে এখন থেকে মাসিক ১৫০ টাকায় বিটিসিএল থেকে বিটিসিএলে যত খুশি কল করা যাবে। একই সঙ্গে বিটিসিএল থেকে অন্য যেকোনো অপারেটরে ৫২ পয়সা মিনিট কলচার্জ নির্ধারণ বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়েছে। আগামী ১৬ আগস্ট থেকে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হচ্ছে।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারের সভাপতিত্বে গতকাল বুধবার মন্ত্রণালয়ে তাঁর দপ্তরে এক বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়। বিটিসিএলের এক কর্মকর্তা বলেন, লাইন রেন্ট না দিতে হলেও গ্রাহককে প্রতি মাসে নির্ধারিত বিল দিতে হবে। এর সঙ্গে অন্য অপারেটরের ফোনে কথা বলার চার্জ যোগ হবে।

২০১২ সালের ২৮ অক্টোবর থেকে বিটিসিএলের গ্রাহকদের লাইন রেন্ট বাড়িয়ে দেওয়া হয়। এর আগে ঢাকা, চট্টগ্রাম ও খুলনা মাল্টি একচেঞ্জ এলাকার গ্রাহকদের জন্য প্রতি মাসে লাইন রেন্ট ছিল ৮০ টাকা। তা বাড়িয়ে ১৬০ টাকা করা হয়। জেলা শহরগুলোতে লাইন রেন্ট ছিল ৭০ টাকা, যা বাড়িয়ে করা হয় ১২০ টাকা। উপজেলা ও গ্রোথ সেন্টার এলাকায় লাইন রেন্ট ছিল ৫০ টাকা; তা বাড়িয়ে ৭০ টাকা করা হয়। এ লাইন রেন্টের সঙ্গে ভ্যাটও যুক্ত হয়। এ ব্যবস্থায় মাসের পর মাস টেলিফোন অকেজো থাকলেও গ্রাহকদের লাইন রেন্টের টাকা গুনতে হচ্ছিল। এ কারণে বিটিসিএলের গ্রাহকসংখ্যাও দ্রুত কমে আসে।

মন্তব্য