kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৫ অক্টোবর ২০১৯। ৩০ আশ্বিন ১৪২৬। ১৫ সফর ১৪৪১       

রামগঞ্জে এক কর্মচারীর লাশ গুমের অভিযোগ

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি   

৮ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে মিল্ক ভিটার কর্মচারী মামুন হোসেন মাতাব্বরকে (২৬) অপহরণ করে হত্যার পর লাশ গুমের অভিযোগ এনে মামলা করা হয়েছে। গতকাল বুধবার দুপুরে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের আমলি আদালতে মামুনের বড় ভাই সুমন মাতাব্বর এ মামলা করেন। এতে মিল্ক ভিটার নিরাপত্তাকর্মী তাজুল ইসলামসহ অজ্ঞাতপরিচয় আরো কয়েকজনকে আসামি করা হয়েছে।

বাদীর আইনজীবী মিজানুর রহমান বলেন, আদালতের বিচারক রায়হান চৌধুরী মামলাটি আমলে নিয়েছেন। ঘটনাটি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য রামগঞ্জ থানার ওসিকে নির্দেশও দেওয়া হয়েছে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, মিল্ক ভিটার রামগঞ্জ উপজেলা কেন্দ্রের ভেতরে নিরাপত্তাকর্মী তাজুল ইসলাম স্থানীয় বখাটেদের নিয়ে বিভিন্ন সময় মাদক সেবন করতেন। কর্মচারী মামুন এতে প্রতিবাদ করলে তাঁকে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়। গত ২৬ জুলাই রাত থেকে মামুনকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। পরদিন নিরাপত্তাকর্মী তাজুলের ডান পায়ে আটটি সেলাই করা ক্ষত দেখা যায়। এ সময় মামুনের কথা জানতে চাইলে তিনি এড়িয়ে যান। আশঙ্কা করা হচ্ছে, তাজুল তাঁর মাদকসেবীদের সঙ্গে নিয়ে মামুনকে অপহরণের পর হত্যা করেছেন। পরে তাঁরা লাশও গুম করে ফেলেন। এদিকে ভাইকে ফিরে পেতে সুমন আদালতের দারস্থ হয়ে তাজুলের নামে অপহরণ মামলা করেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা