kalerkantho

শুক্রবার  । ১৮ অক্টোবর ২০১৯। ২ কাতির্ক ১৪২৬। ১৮ সফর ১৪৪১              

বাম জোটের নেতারা বললেন

ডেঙ্গু প্রতিরোধে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করে সমন্বিত উদ্যোগ নিন

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৮ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দেশের চলমান ডেঙ্গু পরিস্থিতি মহামারি আকার ধারণ করায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বাম গণতান্ত্রিক জোট। ডেঙ্গু প্রতিরোধে দ্রুত জরুরি অবস্থা ঘোষণা করে সমন্বিত উদ্যোগ নেওয়ার দাবি জানান জোটের নেতারা। দাবি আদায়ে মাসব্যাপী আন্দোলন কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে।

গতকাল বুধবার দুপুরে রাজধানীর পুরানা পল্টনস্থ মুক্তি ভবনের মৈত্রী মিলনায়তনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন জোটের সমন্বয়ক ও ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগের সাধারণ সম্পাদক মোশাররফ হোসেন নান্নু।

ঘোষিত কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে ডেঙ্গু প্রতিরোধের দাবিতে আজ বৃহস্পতিবার জেলা-উপজেলা প্রশাসনের মাধ্যমে সাত দফা দাবি সংবলিত স্মারকলিপি পেশ, আগামী শুক্র ও শনিবার ঢাকায় এবং সারা দেশে ডেঙ্গু সচেতনতামূলক প্রচারাভিযান এবং আগামী ২০ আগস্ট থেকে ৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সারা দেশে দাবিপক্ষ পালন।

লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, জুন মাস থেকেই ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে প্রথমে রাজধানী ঢাকায় এবং পরে সারা দেশে লক্ষাধিক মানুষ সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে। প্রতিদিনই কোনো না কোনো হাসপাতাল থেকে মৃত্যুর খবর আসছে। অথচ ঢাকার দুই সিটি মেয়র ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী প্রথমে ডেঙ্গুর আক্রমণকে গুজব বলে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা কমিয়ে তাঁদের অবহেলা ও দুর্নীতিকে আড়াল করার চেষ্টা করেছেন।

বক্তব্যে আরো বলা হয়, ডেঙ্গু নিয়ে বেসরকারি হাসপাতালে বাণিজ্য শুরু হয়েছে। ডেঙ্গু শনাক্তকরণ কিটের কৃত্রিম সংকট তৈরি করে অসাধু ব্যবসায়ীরা ১৪০ টাকার টেস্টিং কিট ৪০০ টাকায় বিক্রি করে মুনাফা লুটছে। সিটি মেয়ররা ব্যর্থতার দায় নিয়ে পদত্যাগ করার বদলে জনগণের সঙ্গে রসিকতা করছেন।

সংবাদ সম্মেলনে বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, সিপিবির প্রেসিডিয়াম সদস্য আবদুল্লাহ ক্বাফী রতন, বাসদ (মার্ক্সবাদী) নেতা মানস নন্দী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা