kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৫ অক্টোবর ২০১৯। ৩০ আশ্বিন ১৪২৬। ১৫ সফর ১৪৪১       

শিক্ষকদের অবহেলায় স্কুলছাত্রের মৃত্যুর অভিযোগ

ছয় শিক্ষকের মোটরসাইকেলে আগুন

বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি   

৮ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দিনাজপুরের বিরামপুরে শিক্ষকদের অবহেলায় দশম শ্রেণির এক ছাত্রের মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ওই স্কুলের ছয় শিক্ষকের ছয়টি মোটরসাইকেল আগুনে পুড়িয়ে দিয়েছে শিক্ষার্থীরা। গতকাল বুধবার দুপুরে উপজেলার কাটলা দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। 

মৃত শিক্ষার্থীর নাম মো. আজিম মণ্ডল (১৬)। সে কাটলা ইউনিয়নের বেণুপুর গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ কনস্টেবল মো. আসাদুল ইসলামের ছেলে এবং কাটলা দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির মানবিক বিভাগের ছাত্র।

আজিম মণ্ডলের সহপাঠীরা জানায়, আজিমের অ্যাজমার সমস্যা ছিল। গতকাল সকালে ক্লাসের মধ্যেই সে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়ে। তাকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যেতে স্কুল প্রাঙ্গণে থাকা শিক্ষকদের মোটরসাইকেল ব্যবহারের অনুমতি চায় সহপাঠীরা। কিন্তু কোনো শিক্ষকই তাঁদের মোটরসাইকেল দিতে রাজি হননি। প্রধান শিক্ষককে জানালে তিনিও কোনো ধরনের সহযোগিতা করেননি বলে অভিযোগ করে শিক্ষার্থীরা। বাধ্য হয়ে সহপাঠীরা তাকে ভ্যানে করেই বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে তার মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে বিক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে স্কুলের শিক্ষার্থীরা। দুপুরের দিকে ছয় শিক্ষকের ছয়টি মোটরসাইকেলে আগুন লাগিয়ে দেয় তারা। পরে বিরামপুর থানার পুলিশ ও হিলি ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

তবে অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. নজরুল ইসলাম। তিনি বলেন, ‘ছাত্রদের মোটরসাইকেল চাওয়ার বিষয়ে আমার কিছুই জানা নেই।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা