kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৫ অক্টোবর ২০১৯। ৩০ আশ্বিন ১৪২৬। ১৫ সফর ১৪৪১       

ডেঙ্গু প্রতিরোধী কার্যক্রম চলবে শিক্ষায়তন বন্ধেও

শরীফুল আলম সুমন   

৮ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ঈদুল আজহা উপলক্ষে ১০ থেকে ২৩ আগস্ট পর্যন্ত সরকারি-বেসরকারি সব কলেজ এবং ৮ থেকে ১৯ আগস্ট পর্যন্ত সব হাই স্কুল ও মাদরাসা বন্ধ থাকবে। আর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় বন্ধ থাকবে ১০ থেকে ১৬ আগস্ট পর্যন্ত। সে হিসাবে সাপ্তাহিক ছুটি মিলিয়ে ১০ থেকে ১২ দিন বন্ধ থাকছে স্কুল-কলেজ। তবে এই বন্ধের মধ্যেও ডেঙ্গু প্রতিরোধ কার্যক্রম চালু রাখার ঘোষণা দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

ডেঙ্গু রোধে ঈদের ছুটিতে আগামী ১২ ও ১৩ আগস্ট ছাড়া অন্য সব দিন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অফিস খোলা রাখার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া ঈদের ছুটির সময় শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের সমন্বয়ে ছয় থেকে ১০ জনের টিম গঠন করে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও আশপাশের জায়গা পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করার নির্দেশ দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

রাজধানীর স্কুলপ্রধানদের নিয়ে গত মঙ্গলবার সভা করেছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা (মাউশি) অধিদপ্তর। সেখানে ৪৮ ঘণ্টা পর পর পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার পাশাপাশি লার্ভিসাইড ও অ্যারোসল ছিটানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া এ ব্যাপারে ফোকাল পয়েন্ট নির্ধারণ করা হয়েছে মাউশি অধিদপ্তরের পরিচালক (প্রশিক্ষণ) ড. প্রবীর কুমার ভট্টাচার্য্যকে। ডেঙ্গু প্রতিরোধে একটি সেলও গঠন করা হয়েছে। এরপর গতকাল বুধবার এ ব্যাপারে শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও মাউশি অধিদপ্তর থেকে পরিপত্র জারি করা হয়েছে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পরিপত্রে বলা হয়, ঈদুল আজহার ছুটিতে একজন শিক্ষকের নেতৃত্বে কর্মচারী, স্কাউট, বিএনসিসি ও শিক্ষার্থীদের সমন্বয়ে ছয় থেকে ১০ জনের টিম গঠন করতে হবে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এবং এর আশপাশে স্বচ্ছ পানি জমে থাকার সম্ভাব্য স্থান যেমন ফুলের টব, পানির ট্যাপের আশপাশের জায়গা, পানির পাম্প, ফ্রিজ ও এসির পানি জমার ট্রে, বাথরুমের বালতি, স্কুল-কলেজের আশপাশে পড়ে থাকা আইসক্রিমের বাক্স, পরিত্যক্ত চায়ের কাপ, ডাবের খোসা ইত্যাদি চিহ্নিত করে এক দিন অন্তর পরিষ্কার করতে হবে।   

মাউশি অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ড. সৈয়দ গোলাম ফারুক বলেন, ‘ডেঙ্গু প্রতিরোধে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে আমরা সর্বাত্মক ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি। ঈদের ছুটিতেও চলবে পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম। যেভাবে আমাদের পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম চলছে তাতে আমরা মনে করি না যে স্কুল-কলেজের ছুটি বাড়ানোর কোনো প্রয়োজন আছে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা