kalerkantho

সোমবার । ১৪ অক্টোবর ২০১৯। ২৯ আশ্বিন ১৪২৬। ১৪ সফর ১৪৪১       

বাংলাদেশ-ভারত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠক কাল

বর্ডার হাট বাড়ানোর প্রস্তাব দেবে বাংলাদেশ

ওমর ফারুক   

৬ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ভারতের দিল্লিতে আগামীকাল বুধবার হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ-ভারত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠক। দ্বিতীয় মেয়াদে মোদি সরকার ক্ষমতায় আসার পর প্রথমবারের মতো এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। বৈঠকে কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে আলোচনা হবে বলে জানা গেছে। বাংলাদেশের তরফ থেকে সীমান্তে হত্যা শূন্যে নামিয়ে আনতে চাপ দেওয়া হবে। এ ছাড়া ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক আরো জোরদার করতে বর্ডার হাট বাড়ানোর প্রস্তাব দেবে বাংলাদেশ।  স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। এবারের বৈঠকে কোস্ট গার্ডের সহযোগিতা বিষয়ে একটি এমওইউ স্বাক্ষরিত হবে।

বৈঠকে ১৬ সদস্যের বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান। অন্যদিকে ভারতের পক্ষে নেতৃত্ব দেবেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলের দেশে ফেরার কথা রয়েছে।

সূত্র জানায়, দিল্লিতে অনুষ্ঠেয় এ বৈঠকে বর্ডার হাট বাড়ানো ছাড়াও সীমান্ত হত্যা, সাইবার অপরাধ নিয়ন্ত্রণ, নিরাপত্তা, সন্ত্রাসবাদ ও চরমপন্থা দমনে সহযোগিতা, সীমান্ত ব্যবস্থাপনা, সীমান্তে অবৈধ কর্মকাণ্ড, মাদক ও চোরাচালান বন্ধে সহযোগিতা, ভিসা সহজীকরণ, রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেওয়ার জন্য সহযোগিতার বিষয়ে আলোচনা করবে দুই পক্ষ।

এ বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান গতকাল বিকেলে কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘বৈঠকে সীমান্ত হত্যা বন্ধসহ নানা বিষয় নিয়ে আলোচনা হবে।’ আগরতলা বিমানবন্দরের জন্য ভারতের তরফ থেকে বাংলাদেশের কাছে জমি চাওয়া হয়েছে কি না জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, ‘এ ধরনের কোনো বিষয় নেই।’

বৈঠকে যোগ দিতে আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১১টায় দিল্লির উদ্দেশে রওনা হবে বাংলাদেশের প্রতিনিধিদল। আগামীকাল বিকেল ৪টায় দুই দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর মধ্যে বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে।

বাংলাদেশের প্রতিনিধিদলে রয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান, স্বরাষ্ট্রসচিব (জননিরাপত্তা বিভাগ) মোস্তাফা কামাল উদ্দীন, আইজিপি ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব (সুরক্ষা সেবা বিভাগ) মো. শহিদুজ্জামান, বিজিবি মহাপরিচালক মেজর জেনারেল সাফিনুল ইসলাম, কোস্ট গার্ডের মহাপরিচালক রিয়ার অ্যাডমিরাল মোহাম্মদ আশরাফুল হক, পাসপোর্ট অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. সোহায়েল হোসেন খান, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. আবু বকর ছিদ্দিক, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক সঞ্জয় কুমার চৌধুরী, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক নিলীমা আক্তার, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব হারুন উর রশীদ বিশ্বাস, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক (সাউথ এশিয়া) তারেক মোহাম্মদ, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উপসচিব আবু হেনা মুস্তফা জামান, দেওয়ান মাহবুবুর রহমান, ল্যান্ড রেকর্ড অ্যান্ড সার্ভে ডিপার্টমেন্টের সহকারী পরিচালক ফেরদৌস হোসাইন ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা শরীফ মাহমুদ অপু।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা