kalerkantho

সোমবার । ১৪ অক্টোবর ২০১৯। ২৯ আশ্বিন ১৪২৬। ১৪ সফর ১৪৪১       

রবীন্দ্রনাথের কুঠিবাড়ি

তিন বছরেও উদ্ধার হয়নি চুরি যাওয়া তরবারি

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুষ্টিয়া   

৬ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের স্মৃতিবিজড়িত শিলাইদহের কুঠিবাড়ির আলমারির তালা ভেঙে চুরি যাওয়া তরবারি দুটি তিন বছর পরও উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। সিসি ক্যামেরার নিরাপত্তাবলয় ভেদ করে এবং নিয়োজিত নিরাপত্তাকর্মীদের ফাঁকি দিয়ে তরবারি উদ্ধার না হওয়ায় রবীন্দ্র ভক্ত-অনুরাগীরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছে।

জানা যায়, ২০১৬ সালের ৩০ মার্চ অফিস চলাকালীন কুঠিবাড়ির দ্বিতীয় তলার ২০১ নম্বর কক্ষের আলমারির তালা ভেঙে পাঁচটি তরবারির মধ্যে দুটি তরবারি চোরের দল চুরি করে পালিয়ে যায়। পরে প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের পরিচালক (প্রশাসন) গাজী ওয়ালিউল হকের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের তদন্তদল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে কুঠিবাড়ির দায়িত্বে নিয়োজিত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জিজ্ঞাসাবাদ করেন। দায়িত্বরত আনসার সদস্য ও কুঠিবাড়ির কর্মকর্তা-কর্মচারীরা চুরির ঘটনায় যেসব বক্তব্য উপস্থাপন করেন, তা সন্তোষজনক ছিল না বলে তদন্ত কর্মকর্তারা জানান।

এ ছাড়া এ ঘটনায় কুমারখালী থানায় করা মামলায় চুরির সঙ্গে কুঠিবাড়ির কর্মকর্তা কিংবা কর্মচারীর যোগসাজশ ছিল বলে পুলিশ প্রাথমিকভাবে সন্দেহ করলেও পরবর্তী সময়ে তদন্তে তেমন কোনো অগ্রগতি হয়নি। আব্দুল মান্নান নামের সন্দেহভাজন এক আসামি ঘটনার প্রায় দেড় বছর পর গ্রেপ্তার হলেও তাঁর কাছ থেকে তরবারি চুরির বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ কোনো তথ্য উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ।

রবীন্দ্রসংগীত সম্মিলন পরিষদ কুষ্টিয়ার সাধারণ সম্পাদক আশোক সাহা জানান, একটি চুরির মামলা ফয়সালা করতে বা চোর ধরতে পুলিশ তিন বছরেও কিছু করতে পারে না, এটা খুুবই দুঃখজনক।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা