kalerkantho

রবিবার  । ১৫ চৈত্র ১৪২৬। ২৯ মার্চ ২০২০। ৩ শাবান ১৪৪১

নাটোরের বড়াইগ্রাম

কমিউনিটি পুলিশকে থানায় ডেকে নিয়ে পেটালেন এসআই

নাটোর প্রতিনিধি   

৫ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বড়াইগ্রামে চাঁদা না পেয়ে বাবুল আক্তার নামের এক কমিউনিটি পুলিশিং সদস্যকে নির্মম নির্যাতনের অভিযোগে পুলিশের উপপরিদর্শক আশরাফ আলীর নামে মামলা দায়ের করা হয়েছে। রবিবার বড়াইগ্রাম আমলি আদালতের বিচারক খোরশেদ আলম মামলাটি আমলে নিয়ে সহকারী কমিশনারকে (ভূমি) তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। এর আগে বাবুল আক্তারের বড় ভাই গোলাম মোস্তফা বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন।

অভিযুক্ত পুলিশ কর্মকর্তা আশরাফ আলী বড়াইগ্রাম থানায় কর্মরত। বাদীর পক্ষে মামলা পরিচালনাকারী লিগ্যাল এইডের আইনজীবী মুনজুরুল আলম বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। 

মামলা সূত্রে জানা যায়, গত ১৯ জুলাই উপজেলার রাজাপুর আস্তিকপাড়া গ্রামের কমিউনিটি পুলিশিং সদস্য বাবুলের চার বছর বয়সী ছেলে হারেজের সঙ্গে খেলতে গিয়ে প্রতিবেশী জয়নালের ছেলে বোরহানের হাতাহাতি হয়। স্থানীয়রা তাৎক্ষণিকভাবে বিষয়টি মীমাংসা করে দেয়। কিন্তু জয়নাল মীমাংসা অগ্রাহ্য করে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। পরে উপপরিদর্শক আশরাফ ২২ জুলাই বাবুল আক্তার ও তাঁর ছেলে হারেজকে থানায় ডেকে পাঠান। তারা থানায় গেলে এসআই আশরাফ আলী এক লাখ টাকা দাবি করেন। কিন্তু তাতে রাজি না হওয়ায় তিনি শিশু হারেজকে থানা হাজতে আটকে রেখে তার সামনেই বাবুলকে বেধড়ক পেটাতে থাকেন।

তবে অভিযুক্ত উপপরিদর্শক আশরাফ মারধরের অভিযোগ অস্বীকার করেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা