kalerkantho

শুক্রবার  । ১৮ অক্টোবর ২০১৯। ২ কাতির্ক ১৪২৬। ১৮ সফর ১৪৪১              

দুই দিনব্যাপী উপকূলীয় পানি সম্মেলন শুরু

নদী খাল পুকুর জলমহাল ইজারা বন্ধের দাবি

খুলনা অফিস   

২ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দেশের উপকূলীয় এলাকায় সরকারি নদী, খাল, পুকুর ও জলমহাল ইজারা বন্ধ করতে সংসদ সদস্যদের (এমপি) উদ্যোগ নিতে হবে। জেলা পরিষদ ও উপজেলা পরিষদ রাজস্ব আদায়ের নামে এসব জলমহাল ইজারা দেয়। এতে স্বাভাবিক পানিপ্রবাহ ব্যাহত ও মিষ্টি পানির আধার নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। উপকূলীয় এলাকায় দিন দিন সুপেয় পানির সংকট সৃষ্টি হচ্ছে।

খুলনায় গতকাল বৃহস্পতিবার শুরু হওয়া দুই দিনব্যাপী দ্বিতীয় উপকূলীয় পানি সম্মেলনের প্রশ্নোত্তর পর্বে এসব কথা বলেন বিভিন্ন প্রতিনিধিরা। খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় (খুবি) ক্যাম্পাসে সরকারি-বেসরকারি ৪৫টি প্রতিষ্ঠানের আয়োজন করে।

আয়োজক কমিটির উপদেষ্টা পরিষদের চেয়ারপারসন ও খুলনা সিটি করপোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেকের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য।

সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন সংসদ সদস্য ডা. মোজাম্মেল হোসেন, অ্যাডভোকেট মোস্তফা লুৎফুল্লাহ, মীর মোস্তাক হোসেন ববি, মো. আখতারুজ্জামান বাবু, খুবির উপাচার্য ফায়েক উজ জামান, খুলনা বিভাগীয় কমিশনার মো. লোকমান হোসেন, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী মো. সাইফুর রহমান, ওয়ার্ল্ড ভিশনের কান্ট্রি ডিরেক্টর ফ্রেড রাইটভেন প্রমুখ। সম্মেলনে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ইউজিসি সদস্য অধ্যাপক মোহাম্মদ আলমগীর। দুটি পর্বে অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন ভোরের কাগজ সম্পাদক শ্যামল দত্ত ও আয়োজক কমিটির সদস্যসচিব শামীম আরেফীন। স্বাগত বক্তব্য দেন আয়োজক কমিটির আহ্বায়ক মো. নুরুল আলম রাজু।

সকালে প্রশ্নোত্তর পর্বে অংশগ্রহণকারী বিভিন্ন প্রতিনিধিদের প্রশ্নের উত্তর দেন এবং সংশ্লিষ্ট এলাকার বিভিন্ন সমস্যা নিরসনে তাঁদের উদ্যোগ ও প্রচেষ্টার কথা বলেন এমপিরা। তাঁরা বলেন, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে দীর্ঘদিন ধরে খাল, পুকুর ও জলমহাল ইজারা দেওয়া হচ্ছে। প্রশাসনের লোকজন এ বিষয়ে অনেক ক্ষেত্রে জনপ্রতিনিধিদের মতামত নেন না। বিশেষ করে উপকূলীয় এলাকায় এ জন্য সুপেয় ও মিষ্টি পানির আধার নষ্ট হয়। তাঁরা এসব ইজারা বন্ধের পদক্ষেপ নেওয়ার আশ্বাস দেন। সবাইকে সচেতন হওয়ারও আহ্বান জানান।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা