kalerkantho

সোমবার । ১৪ অক্টোবর ২০১৯। ২৯ আশ্বিন ১৪২৬। ১৪ সফর ১৪৪১       

বিয়ের ২৩ দিনের মাথায় স্বামীর হাতে প্রাণ গেল বালিকা বধূর

নিজস্ব প্রতিবেদক, হাওরাঞ্চল   

১ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



কিশোরগঞ্জের অষ্টগ্রামে বিয়ের ২৩ দিনের মাথায় স্বামীর হাতে খুন হয়েছে চায়না আক্তার (১৪) নামের এক বালিকা বধূ। গতকাল বুধবার (৩১ জুলাই) সকালে উপজেলার দেওঘর ইউনিয়নের আলীনগর উত্তরপাড়ায় বাবার বাড়ির শোবার ঘরের বিছানায় হাত বাঁধা অবস্থায় চায়নার মৃতদেহ পাওয়া যায়। পুলিশ জানায়, আলীনগর মধ্যপাড়ার সুফল মিয়ার ছেলে ফয়েজ মিয়া স্ত্রী চায়নাকে শ্বাসরোধে হত্যার পর গাঢাকা দিয়েছে।

পুলিশ ও নিহতের পরিবার সূত্র জানায়, আলীনগর উত্তরপাড়ার আক্কাস মিয়ার মেয়ে চায়না স্থানীয় হোসেনিয়া আলিম মাদরাসার অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী ছিল। মাদরাসার সনদপত্র অনুযায়ী তার বয়স মাত্র ১৪ বছর। গত ৮ জুলাই আদালতে এফিডেভিটের মাধ্যমে বয়স বাড়িয়ে অপ্রাপ্তবয়স্ক মেয়েটিকে বিয়ে দেওয়া হয়। বিয়ের মাত্র ২৩ দিনের মাথায় তার এমন পরিণতি কেউ মেনে নিতে পারছে না।     

অষ্টগ্রাম থানার ওসি কামরুল ইসলাম মোল্লা জানান, মৃতদেহের গলায় ও হাতে কালো দাগ পাওয়া গেছে। স্বামী ফয়েজই তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। মৃতদেহ বুধবারই ময়নাতদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা