kalerkantho

সোমবার । ১৪ অক্টোবর ২০১৯। ২৯ আশ্বিন ১৪২৬। ১৪ সফর ১৪৪১       

ভালুকায় বন বিভাগ ও গ্রামবাসীর সংঘর্ষ আহত ৩০

ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি   

১ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চারা লাগানোকে কেন্দ্র করে ময়মনসিংহের ভালুকায় বন বিভাগ ও গ্রামবাসীর মধ্যে ধাওয়াধাওয়ি, সংঘর্ষ ও গুলির ঘটনা ঘটেছে। এতে অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছেন। গতকাল বুধবার দুপুরে উপজেলার হবিরবাড়ি ইউনিয়নের আমতলী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

বন বিভাগ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গতকাল দুপুরে জামিরদিয়া এলাকায় ১৫৪ নম্বর দাগের জমিতে গাছ লাগাতে যাচ্ছিলেন বন বিভাগের লোকজন। পথে আমতলী এলাকায় গ্রামবাসীর বাধার মুখে পড়েন তাঁরা। এ সময় দুই পক্ষের মধ্যে ধাওয়াধাওয়ি ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। তখন বন বিভাগের পক্ষ থেকে চার রাউন্ড ফাঁকা গুলি করা হয়। একপর্যায়ে হবিরবাড়ি রেঞ্জের রেঞ্জ কর্মকর্তা মোজাম্মেল হোসেন ও বিট কর্মকর্তা আবদুর রফিককে অবরুদ্ধ করে রাখে স্থানীয়রা। এ সময় চারা ও শ্রমিকবাহী একটি সরকারি পিকআপ, দুটি লেগুনা ও একটি মিনিট্রাকে ভাঙচুর চালানো হয়। খবর পেয়ে ভালুকা মডেল থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনায় বনপ্রহরী মনিরুজ্জামান, ছানোয়ার হোসেন, শহিদুল ইসলাম, রুবেল, বনমালী জীবন দেওয়ান, চারা লাগানোর শ্রমিক সুমন, শরীফুল ইসলাম, মফিজুল ইসলাম, সিদ্দিক মিয়া, জাহাঙ্গীর আলম, রিপন, সুমন-২, গাড়িচালক সোহাগ ও আকরাম আহত হয়েছেন। এ সময় স্থানীয় অন্তত ১৫ ব্যক্তি আহত হন। তাঁদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

ভালুকা রেঞ্জের রেঞ্জ কর্মকর্তা মোজাম্মেল হোসেন বলেন, ‘চারা লাগাতে গেলে বন বিভাগের জমি দখলকারী ব্যক্তিরা হামলা চালান। এ ঘটনায় বনপ্রহরী, বনমালীসহ বেশ কয়েকজন শ্রমিক আহত হয়েছেন। আহত বনপ্রহরীদের ভালুকা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়েছে।’

ভালুকা মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ মাইন উদ্দিন জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পাঠিয়ে বন কর্মকর্তাদের উদ্ধার করা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা