kalerkantho

সোমবার । ১৪ অক্টোবর ২০১৯। ২৯ আশ্বিন ১৪২৬। ১৪ সফর ১৪৪১       

দুজনকে ধর্ষণের অভিযোগে শিক্ষক ও যুবক গ্রেপ্তার

ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির ঘটনায় শিক্ষক বরখাস্ত, সেবানকে ধর্ষণচেষ্টা

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



চুয়াডাঙ্গায় এক মাদরাসার ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগে শিক্ষক ও নাটোরের বাগাতিপাড়ায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বগুড়ার শাজাহানপুরে স্কুলছাত্রীকে শ্লীলতাহানির ঘটনায় এক শিক্ষককে সাময়িক বরখাস্ত করেছে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি। সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে সেবানকে ধর্ষচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। আমাদের প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

চুয়াডাঙ্গা : গ্রেপ্তার মাদরাসা শিক্ষকের নাম আব্দুল মোমেন (৩০)। চুয়াডাঙ্গা সদর থানা পুলিশ মঙ্গলবার দিনগত রাত ৩টার দিকে তাঁকে কুষ্টিয়ার মিরপুর থানার আমলা সদরপুর থেকে গ্রেপ্তার করে। একই দিন তাঁর বিরুদ্ধে চুয়াডাঙ্গা থানায় মামলা করেন নির্যাতিত ছাত্রের চাচা।

চুয়াডাঙ্গা থানার ওসি আবু জিহাদ মোহাম্মদ ফকরুল আলম খান জানান, মেহেরপুরের গাংনীর বেড়দক্ষিণপাড়া গ্রামের আমিনুল হকের ছেলে হাফেজ মাওলানা মুফতি আব্দুল মোমেন ২০১৮ সালে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার আলুকদিয়া আকন্দবাড়িয়া কওমি মাদরাসার শিক্ষক ছিলেন। ওই বছর ২৫ ফেব্রুয়ারি রাতে তিনি মাদরাসার এক ছাত্রকে বলাৎকার করেন এবং ঘটনা কাউকে জানালে ছাত্রটিকে হত্যার হুমকি দেন। ভয়ে ওই ছাত্র বিষয়টি কাউকে জানায়নি। এদিকে আলমডাঙ্গার কয়রাডাঙ্গা গ্রামের নুরানি হাফিজিয়া মাদরাসার এক ছাত্রকে বলাৎকারের পর হত্যার ঘটনায় তোলপাড় শুরু হলে আকন্দবাড়িয়া কওমি মাদরাসার ছাত্রটি তাকে বলাৎকারের ঘটনা ফাঁস করে।

নাটোর : মঙ্গলবার বিকেলে বাগাতিপাড়া থানায় নির্যাতিত শিশুর বাবার করা মামলায় গ্রেপ্তার যুবকের নাম হাবিবুর রহমান (২৩)। সে উপজেলার বিলগোপালহাটি গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে। মামলা সূত্রে জানা যায়, গত রবিবার দুপুরে মানসিকভাবে অসুস্থ শিশুটি বাড়ি থেকে রাস্তায় গেলে হাবিবুর তাকে পাশের আখক্ষেতে নিয়ে ধর্ষণ করে। এতে শিশুটি অসুস্থ হলে পরিবার তাকে নাটোর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। বাগাতিপাড়া মডেল থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম শেখ বলেন, অভিযোগটি গুরুত্ব দিয়ে খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

শাজাহানপুর (বগুড়া) : শাজাহানপুর উপজেলার মাদলা মালিপাড়া আরআরএমইউ উচ্চ বিদ্যালয়ের এক ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির ঘটনায় সহকারী শিক্ষক আব্দুল মজিদকে মঙ্গলবার সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। ছাত্রীর বাবা জানান, গত রবিবার বিদ্যালয়ের ক্লাসে তাঁর মেয়ের শ্লীলতাহানি করেন আব্দুল মজিদ। সে আর বিদ্যালয়ে যাবে না। এ ঘটনায় বিচার চেয়ে প্রধান শিক্ষকের কাছে লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়। ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি জুয়েল জায়দার জানান, অভিযুক্ত শিক্ষক দোষী প্রমাণিত হওয়ায় তাঁকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয় এবং কেন তাঁকে স্থায়ীভাবে বরখাস্ত করা হবে না, মর্মে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে।

শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) : শাহজাদপুর উপজেলার কৈজুরী ইউনিয়নে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে সত্ভাইয়ের বিরুদ্ধে মঙ্গলবার থানায় মামলা করেন সেবান। অভিযুক্তকে রাতে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। জানা গেছে, ওই নারী গত শনিবার দুপুরে নিজ ঘরে ঘুমিয়ে ছিলেন। এ সময় তাঁর সত্ভাই ঘরে ঢুকে তাঁকে ধর্ষণের চেষ্টা চালান। ওই নারী ও তাঁর শিশুসন্তান চিৎকার করলে অভিযুক্ত পালিয়ে যান।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা