kalerkantho

শনিবার  । ১৯ অক্টোবর ২০১৯। ৩ কাতির্ক ১৪২৬। ১৯ সফর ১৪৪১         

সংবাদ সম্মেলনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

গণপিটুনিতে অংশ নেওয়া সবাইকে শাস্তি পেতে হবে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৪ জুলাই, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন, গুজবে বিশ্বাস করে গণপিটুনির মতো অন্যায় কাজে যারা অংশ নিচ্ছে, তাদের প্রত্যেককেই শাস্তি পেতে হবে। ভবিষ্যতে এ ধরনের ঘটনায় কাউকে না জড়ানোর জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি।

গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘সোশ্যাল মিডিয়া ও পরস্পর পরস্পরের মাধ্যমে গুজব সৃষ্টি করে গণপিটুনির মতো অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটানো হচ্ছে, যা কারো কাম্য নয়। এসবের কোনো ভিত্তি নেই। এ ধরনের ঘটনা আর যেন না ঘটে। যাঁরা বিবেচনা ছাড়াই আইন নিজের হাতে তুলে নিচ্ছেন তাঁদের প্রতি অনুরোধ, আইন নিজের হাতে তুলে নেবেন না। যদি কারো বিষয়ে সন্দেহ হয়, তাকে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার কাছে সোপর্দ করুন। তাদের ফোনে জানান অথবা ৯৯৯ রয়েছে, সেখানে জানান।’

মন্ত্রী আরো বলেন, ‘যাঁরা বিবেচনা না করে আইন নিজের হাতে তুলে নিচ্ছেন, যাঁরা গণপিটুনিতে অংশ নিচ্ছেন, তাঁদের একজন বা ১০০ জনও যদি এমন ঘটনা ঘটান, শাস্তি একই রকম হবে। এ ধরনের হত্যাকাণ্ড ঘটলে আমরা দোষীদের অবশ্যই আইনের মুখোমুখি করব। আইন অনুযায়ী তাঁদের শাস্তি পেতেই হবে।’

সংবাদ সম্মেলনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, এখন পর্যন্ত গণপিটুনিতে সারা দেশে নিহত হয়েছে ছয়জন, আহত হয়েছে ১৫ জন। এ পর্যন্ত মামলা হয়েছে ৯টি, জিডি হয়েছে ১৫টি এবং সর্বমোট গ্রেপ্তার ৮১ জন। বাড্ডার তাছলিমা বেগম রেণু হত্যা ঘটনায় আটক হয়েছে ছয়জন।

মন্ত্রী বলেন, গণপিটুনি দিয়ে হত্যার সঙ্গে জড়িতদের ভিডিও দেখে শনাক্ত করা হচ্ছে। তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। মানসিক প্রতিবন্ধীরাই গণপিটুনির শিকার হচ্ছে বেশি। এনজিওকর্মীদেরও এ ধরনের ঘটনার শিকার হতে হয়েছে। ব্যক্তিগত আক্রোশে ধামরাইয়ে রটনা রটিয়ে গণপিটুনির ঘটনা ঘটেছে।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা