kalerkantho

বারহাট্টায় নিখোঁজ বালু ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার

নেত্রকোনা প্রতিনিধি   

৭ জুলাই, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নেত্রকোনার বারহাট্টায় নিখোঁজের এক দিন পর শহিদুল্লাহ (৩৬) নামের এক বালু ব্যবসায়ীর লাশ নদী থেকে উদ্ধার করেছে স্থানীয়রা। গতকাল শনিবার সকালে তাঁর লাশ উদ্ধার করা হয় বলে নিশ্চিত করেছেন বারহাট্টা থানার ওসি মো. বদরুল আলম খান। শহিদুল্লাহ উপজেলার সাহাতা ইউনিয়নের ময়মনসিংহ ডহরপাড়া গ্রামের মৃত আবদুল হেকিমের ছেলে।

এলাকাবাসী জানায়, শহিদুল্লাহ দীর্ঘদিন ধরে নৌকায় বালু নিয়ে বিভিন্ন জায়গায় বিক্রি করতেন। গত শুক্রবার তিনি প্রতিদিনের মতো নৌকা করে বালু নিয়ে উপজেলার অতিথপুর যাচ্ছিলেন। তাঁকে বহনকারী নৌকাটি হুজরাবাড়ী ব্রিজ পার হওয়ার সময় তিনি মাথায় প্রচণ্ড আঘাত পান এবং পানিতে পড়ে যান। এ সময় নৌকায় থাকা লোকজন ও এলাকাবাসী অনেক খোঁজাখুঁজির পরও শহিদুল্লাহর কোনো সন্ধান পায়নি। পরে গতকাল সকালে তাঁর লাশ নদীতে ভাসতে দেখে পরিবারের লোকজনকে খবর দেয় স্থানীয়রা।

এদিকে হাওরাঞ্চল প্রতিনিধি জানান, নেত্রকোনার খালিয়াজুরীতে নিখোঁজের এক দিন পর হাওরের পানি থেকে সুশেন তরফদার (৩২) নামে এক যুবকের ভাসমান লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গত শুক্রবার রাত ৯টার দিকে উপজেলার নগর ইউনিয়নের বল্লভপুর-কালিহাটি গ্রামের পাশের হাওর থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। সুশেন একই ইউনিয়নের গোয়ালবাড়ী গ্রামের হরেন্দ্র তরফদারের ছেলে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য ও নিহত সুশেনের বৌদি সুচিত্রা তরফদার জানান, বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে সুশেন একাই ইঞ্জিলচালিত একটি ছোট নৌকা নিয়ে পাশের আদমপুর বাজার থেকে পানিবাড়ী নামক গ্রামে যাওয়ার উদ্দেশ্যে রওনা দেন। এরপর থেকেই তিনি নৌকাসহ নিখোঁজ ছিলেন। তিনি আরো জানান, শুক্রবার রাতে স্থানীয় লোকজন বল্লভপুর-কালিহাটি গ্রামসংলগ্ন হাওরের পানিতে সুশেনের লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাঁর লাশ উদ্ধার করে। একই সঙ্গে ডুবন্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয় সুশেনের ব্যবহৃত নৌকাটিকেও।

মন্তব্য