kalerkantho

সোমবার । ২৬ আগস্ট ২০১৯। ১১ ভাদ্র ১৪২৬। ২৪ জিলহজ ১৪৪০

বাধা সত্ত্বেও ট্রাকভর্তি চাল নিয়ে পালাল কালোবাজারি

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, ময়মনসিংহ   

১৭ জুন, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



‘ভাই, আমি তো চালভর্তি ট্রাক আটকিয়েছিলাম। কিন্তু কী করব, অনেকের চাপের মুখে আমার সামনে দিয়ে ট্রাকটি চলে যায়। এ অবস্থায় আমি তো সামনে গিয়ে বাধা দিতে পারি না।’ দুস্থ ও অসহায় মানুষের জন্য বরাদ্দকৃত ভিজিএফের চাল আটকানোর পরও তা জব্দ করতে না পারায় অসহায়ত্ব প্রকাশ করে এ কথা বলেন উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা। গতকাল রবিবার বিকেলে এ ধরনের ঘটনা ঘটেছে ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার মোয়াজ্জেমপুর ইউনিয়নের মাজার বাসস্ট্যান্ড এলাকায়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ওই এলাকার ফজলু মিয়ার দোকানে সরকারি বস্তা থেকে চাল বের করে প্লাস্টিকের বস্তায় ভরে সেগুলো ট্রাকে তোলা হচ্ছিল। ওই খবর উপজেলা প্রশাসনকে অবহিত করে এলাকার লোকজন। পরে সেখানে যান উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মোছা. রাশিদা রহমান। তিনি জানান, ইউএনও মোসাদ্দেক মেহ্দী ইমামের নির্দেশে তিনি ঘটনাস্থল মাজার বাসস্ট্যান্ডে যান। সেখানে গিয়ে ট্রাকটি আটক করার চেষ্টা করেন। ওই সময় বেশ কিছু লোক ট্রাকটি আটকাতে বাধা দেয়। পরে তাঁর সামনে দিয়ে ট্রাকটি ময়মনসিংহের দিকে দ্রুত চলে যায়। তাৎক্ষণিক বিষয়টি তিনি নির্বাহী কর্মকর্তাকে অবহিত করেন। পরে ফজলু মিয়ার দোকানের ভেতর বেশ কিছু বস্তা চাল পেয়ে তা জব্দ করে চলে আসেন।

মোয়জ্জেমপুর ইউপি চেয়ারম্যান আবু বক্কর সিদ্দিক বলেন, তিনি ঘটনাস্থলে গিয়ে ফজলুর দোকানে চাল পেয়েছেন।

মন্তব্য