kalerkantho

বুধবার । ২৩ অক্টোবর ২০১৯। ৭ কাতির্ক ১৪২৬। ২৩ সফর ১৪৪১                 

কাঁচা পাট রপ্তানির নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৩ জুন, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আনকাট, বাংলা তোষা রিজেকশন (বিটিআর) এবং বাংলা হোয়াইট রিজেকশন (বিডাব্লিউআর) এই তিন ধরনের কাঁচা পাট রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছে সরকার। গত বছরের ১৮ জানুয়ারি জারি করা নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে আদেশ জারি করেছে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়। পাট আইন ২০১৭-এর ১৩ ধারায় আনকাট, বিটিআর ও বিডাব্লিউআর ক্যাটাগরির কাঁচা পাটের রপ্তানি বন্ধ করেছিল সরকার।

খাতসংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা জানান, পাটকাঠি থেকে ছাড়ানোর পর আঁশ রোদে শুকিয়ে যে পাট পাওয়া যায়  সেটিকে আনকাট বলা হয়, এতে ভালো-মন্দ সব অংশই থাকে। আর তোষা জাতের পাটের খারাপ অংশটুকুকে বিটিআর এবং সাদা জাতের পাটের খারাপ অংশকে বিডাব্লিউআর হিসেবে চিহ্নিত করা হয়।

পণ্যে পাটের মোড়কের ব্যবহার নিশ্চিত করতে ২০১৫ সালের ৩ নভেম্বর এক মাসের জন্য সব ধরনের কাঁচা পাট রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা দেয় সরকার। এর এক মাস পর কাঁচা পাট রপ্তানিতে অনির্দিষ্টকালের নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়। সেই নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হয়েছিল ২০১৬ সালের ৩ এপ্রিল। এরপর গত বছর তিন ধরনের কাঁচা পাট রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়।

প্রসঙ্গত, পাটপণ্যের আন্তর্জাতিক চাহিদা কমে আসায় অনেক মিল অবিক্রীত পাটপণ্য নিয়ে বিপদে রয়েছে। রপ্তানি কমে আসায় সক্ষমতার তুলনায় উৎপাদন অর্ধেকে নামিয়ে এনেছে এসব মিল কর্তৃপক্ষ। এ কারণে গত মৌসুমের অবিক্রীত পাটের মজুদ এখনো রয়ে গেছে।

এদিকে নতুন মৌসুমের পাট বাজারে আসতে আর বেশি দিন বাকি নেই। এ পরিপ্রেক্ষিতে কাঁচা পাট রপ্তানি নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে নেওয়া এসংক্রান্ত এক প্রজ্ঞাপনে স্বাক্ষর করেন বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব খুরশীদ ইকবাল রেজভী। জাতীয় রাজস্ব  বোর্ড (এনবিআর), বাংলাদেশ ব্যাংক, রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোসহ (ইপিবি) সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়, সংস্থা ও বিভাগকে সরকারের এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা