kalerkantho

বৃহস্পতিবার  । ১৭ অক্টোবর ২০১৯। ২ কাতির্ক ১৪২৬। ১৭ সফর ১৪৪১       

ফজলের বদলে সজল জেলে

দেড় মাস পর মুক্তি পেল সজল, ওসিকে শোকজ

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি   

১৩ জুন, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাজশাহীতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের একটি মামলায় বড় ভাই ফজলের বদলে গ্রেপ্তার হওয়া ছোট ভাই সজলকে (৩৫) দায় থেকে অব্যাহতি দিয়েছেন আদালত। প্রায় দেড় মাস কারাভোগের পর তাঁকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে আসামি না হয়েও সাজাপ্রাপ্ত আসামি হিসেবে কেন সজলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল সে জন্য নগরীর শাহ মখদুম থানার ওসি এস এম মাসুদ পারভেজকে শোকজ করা হয়েছে। আগামী সাত দিনের মধ্যে তাঁকে আদালতে হাজির হয়ে জবাব দিতে হবে। গতকাল বুধবার জেলার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মনসুর আলম এ আদেশ দেন।

সজলের ছয় ভাই-বোন আদালতে এফিডেফিট করে জানান, দণ্ডপ্রাপ্ত ফজল দীর্ঘদিন ধরেই নিখোঁজ রয়েছেন। তাঁরা ফজলের কোনো খোঁজ জানেন না। ফজল হিসেবে যাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে তিনি আসলে সজল।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মোজাফফর হোসেন জানান, শোকজের জবাব সন্তোষজনক না হলে ওসির বিরুদ্ধে মামলা হবে। দুজন সাক্ষী ওসিকে এফিডেফিট করে দিয়ে বলেছিলেন, এটিই আসামি। তাই ওসির জবাবের জন্য অপেক্ষা করতে হবে। এরপর আদালতই এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত দেবেন।

উল্লেখ্য, সজল রাজশাহীর ছোট বনগ্রাম পশ্চিমপাড়া মহল্লার তোফাজ উদ্দিনের ছেলে। তাঁর বড় ভাই সেলিম ওরফে ফজল নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের একটি মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি। তাঁর অনুপস্থিতিতে ২০০৯ সালের ২৮ আগস্ট মামলার রায় হয়। এরপর থেকেই তিনি পলাতক। ৩০ এপ্রিল ফজলের পরিবর্তে সজলকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা