kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৩ মে ২০১৯। ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৭ রমজান ১৪৪০

ফরিদপুরে বালুমহাল নিয়ে আ. লীগে সংঘর্ষ আহত ২০

নিজস্ব প্রতিবেদক, ফরিদপুর   

১৬ মে, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার ঘোষপুর ইউনিয়নের চণ্ডীবিলা গ্রামে গতকাল বুধবার সকালে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে অন্তত ২০ জন আহত হয়েছে। এ সময় উভয় পক্ষের ১০-১২টি বাড়িঘর ভাঙচুর করা হয়। আহতদের মধ্যে ৯ জনকে ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

উপজেলার ঘোষপুর ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের অর্থবিষয়ক সম্পাদক এস এম ফারুক হোসেন এবং সাবেক চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা চাঁদ মিয়ার সমর্থকদের মধ্যে এই সংঘর্ষ হয়। খবর পেয়ে থানা-পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পুলিশ দুই পক্ষের চারজনকে আটক এবং বেশ কিছু ঢাল, সড়কিসহ দেশি অস্ত্র উদ্ধার করেছে। 

এলাকাবাসী জানায়, সম্প্রতি চণ্ডীবিলা গ্রামে মধুমতী নদীর বালুমহাল ইজারাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের বিরোধ তুঙ্গে ওঠে। এর জের ধরে গতকাল সকালে দুই পক্ষের সমর্থকরা দেশি অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষে ঘোষপুর ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহসভাপতি মুন্নু মোল্লা, (৪০), স্থানীয় কাজী রফিউদ্দিন (৫৫), কাজী শিমুল (৩২), কাজী শামীম (৩০), সাইফার (৩৫), মোস্তফা মোল্যা (৫০), সাইফুর রহমান (৫০), আব্দুর রাজ্জাক (৭০), মতিয়ার রহমান (৪৫), কবির হোসেন (৫৫) ও সাহেব আলীকে (৩৫) আহত অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

বোয়ালমারী থানার ওসি এ কে এম শামীম হাসান জানান, সংঘর্ষের ঘটনায় গতকাল বিকেল ৪টা পর্যন্ত কোনো পক্ষই থানায় অভিযোগ দেয়নি। হামলার ব্যাপারে পুলিশের পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ সঠিক নয় বলে জানান তিনি।

মন্তব্য