kalerkantho

বুধবার । ১৩ নভেম্বর ২০১৯। ২৮ কার্তিক ১৪২৬। ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

মহান স্বাধীনতা দিবস আজ

‘গণহত্যার স্বীকৃতি দাবি পুনরাবৃত্তি ঠেকাতেই’

কূটনৈতিক প্রতিবেদক   

২৬ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিশ্বে গণহত্যার পুনরাবৃত্তি ঠেকাতে ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের জনগণের ওপর পাকিস্তানি বাহিনীর গণহত্যার স্বীকৃতি এবং সেই ঘৃণ্য অপরাধীদের বিচার দাবি করেছেন বিশিষ্টজনরা। গতকাল সোমবার ঢাকায় একটি হোটেলে ‘১৯৭১ সালে বাংলাদেশে গণহত্যা : জবাবদিহি ও স্বীকৃতি’ শীর্ষক সেমিনারে তাঁরা ওই দাবি জানান। ওই সময় তাঁরা ২৫ মার্চকে ‘আন্তর্জাতিক গণহত্যা দিবস’ হিসেবে ঘোষণা করারও দাবি জানান। আওয়ামী লীগের আন্তর্জাতিক সম্পর্কবিষয়ক উপকমিটি ওই সেমিনারের আয়োজন করে।

অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহিরয়ার আলম বলেন, ‘আন্তর্জাতিক গণহত্যা দিবস হিসেবে ঘোষণা সম্ভব নয় যদি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় তাকে স্বীকৃতি না দেয়। আমরা আশা করছি, তারা আমাদের পাশে থাকবে।’

১৯৭১ সালে অক্সফামের হয়ে বাংলাদেশের শরণার্থী নিয়ে কাজ করা ব্রিটিশ নাগরিক জুলিয়ান ফ্রান্সিস সেমিনারে গণহত্যার ভয়াবহতা তুলে ধরতে গিয়ে বলেন, ‘আমি কখনো ১৯৭১ সালকে ভুলতে পারব না। এখনো মাঝেমধ্যে ভোরে দুঃস্বপ্নে ঘুম ভেঙে যায়। আমি দেখি, বাংলাদেশের শরণার্থীশিবিরে আছি আমি এবং আমার হাতে এক শিশুর লাশ।’ তিনি বলেন, বাংলাদেশের বর্তমান জনসংখ্যার ৭৬ শতাংশের জন্ম ১৯৭১ সালের পর। তাই বারবার সত্য ইতিহাস তুলে ধরে এই মানুষদের স্মরণ করানো গুরুত্বপূর্ণ।

জুলিয়ান ফ্রান্সিস বলেন, পাকিস্তানি লেখক জুনায়েদ খানের লেখা ‘ক্রিয়েশন অব বাংলাদেশ : মিথস এক্সপ্লোডেড’ বইয়ের বিকৃত তথ্যের বিষয়ে ২০১৭ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি এক অনুষ্ঠানে তৎকালীন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদের সঙ্গে তাঁর কথা হয়েছিল। তোফায়েল আহমেদ সেদিনই পার্লামেন্টে পয়েন্ট অব অর্ডারে দাঁড়িয়ে এমন এক দাবি (গণহত্যা দিবস) তোলেন, যা সবার দাবি হলেও আগে সেভাবে তুলে ধরা হয়নি। এর পর থেকে ২৫ মার্চকে জাতীয়ভাবে গণহত্যা দিবস হিসেবে পালন করা হচ্ছে। তিনি বলেন, আন্তর্জাতিকভাবে গণহত্যা দিবসের স্বীকৃতির জন্য এখনই পদক্ষেপ নেওয়ার উপযুক্ত সময়।

জুলিয়াস ফ্রান্সিস বলেন, ‘আন্তর্জাতিকভাবে গণহত্যা দিবস হিসেবে দিনটির স্বীকৃতি পাওয়া একটু কঠিন। কেননা ভিন্ন ভিন্ন পার্লামেন্টে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে। আমরা এ বিষয়টি ব্রিটিশ পার্লামেন্ট থেকে শুরু করতে পারি।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা