kalerkantho

রবিবার । ২০ অক্টোবর ২০১৯। ৪ কাতির্ক ১৪২৬। ২০ সফর ১৪৪১                

বিলাইছড়ি আওয়ামী লীগ নেতা হত্যার ঘটনায় মামলা, আটক ১

রাঙামাটি প্রতিনিধি   

২৪ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাঙামাটির বিলাইছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সুরেশ কান্তি তঞ্চঙ্গ্যাকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় মামলা করা হয়েছে। ঘটনার পাঁচ দিনের মাথায় গত শুক্রবার রাতে মামলাটি করেছেন উপজেলা যুবলীগের অর্থ সম্পাদক মনির হোসেন। এতে সন্তু লারমার নেতৃত্বাধীন পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির উপজেলা কমিটির সভাপতি ও বর্তমান চেয়ারম্যান শুভ মঙ্গল চাকমাকে প্রধান আসামি এবং দলটির আরো ২০ জন নেতাকর্মীর নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাতপরিচয় আরো সাত-আটজনকে আসামি করা হয়েছে।

বিলাইছড়ি থানার ওসি মো. পারভেজ আলী জানান, নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে নয়, দলের পক্ষ থেকেই মামলাটি করা হয়েছে। তার দলের একজন সহকর্মীই মামলাটি করেছেন। এখন আইন তার নিজস্ব গতিতেই চলবে।

এদিকে সুরেশ কান্তি তঞ্চঙ্গ্যা হত্যা মামলায় সন্দেহভাজন হিসেবে স্নেহাশীষ চাকমা (আশিষ) নামে একজনকে আটক করেছে যৌথ বাহিনী। গত শনিবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শহরের বনরূপা এলাকা থেকে যৌথ বাহিনী তাঁকে আটক করে। স্নেহাশীষ চাকমা ছাত্রজীবনে সন্তু লারমার নেতৃত্বাধীন ছাত্র সংগঠন পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন বলে জানিয়েছে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

কোতোয়ালি থানার ওসি মীর জাহেদুল হক রনি জানান, যৌথ বাহিনীর অভিযানে স্নেহাশীষ চাকমা নামে একজনকে আটক করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ১৯ মার্চ সকালে নির্বাচনের কাজ শেষে উপজেলার ফারুয়ার গ্রামের বাড়ি থেকে সপরিবারে বিলাইছড়ি ফেরার পথে আলিখিয়ং এলাকায় একদশ সশস্ত্র সন্ত্রাসী সুরেশ কান্তি তঞ্চঙ্গ্যাকে বহনকারী ইঞ্জিনচালিত বোটটি থামিয়ে তাঁকে বুকে ও কপালে গুলি করে হত্যা করে।

 

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা