kalerkantho

জালিয়াতি করে মুক্তিযোদ্ধা ভাতা উত্তোলন, মামলা

সিলেট অফিস   

১১ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জালিয়াতির মাধ্যমে মুক্তিযোদ্ধা সেজে এক মৃত মুক্তিযোদ্ধার ভাতা তুলছিলেন জনৈক মুহিবুর রহমান। পরবর্তী সময়ে তিনিও মারা গেলে তাঁর স্ত্রী হানুফা বেগম পাচ্ছিলেন স্বামীর মুক্তিযোদ্ধা ভাতা। এ ঘটনায় আসল মুক্তিযোদ্ধার ছেলে প্রতিকার চেয়ে বিভিন্ন দপ্তরে ঘুরে ব্যর্থ হয়ে অবশেষে আদালতের আশ্রয় নিয়েছেন। গতকাল রবিবার সিলেটের অতিরিক্ত মহানগর মুখ্য হাকিম আদালতে তিনি এ ব্যাপারে মামলা করেছেন। মামলার আসামি করা হয়েছে ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা পরিচয়দানকারী ব্যক্তির স্ত্রী ও সন্তানদের।

মামলার আসামিরা হলেন ভাতা উত্তোলনকারী ব্যক্তির স্ত্রী হানুফা বেগম, তাঁর ছেলে রানা আহমদ, বাবু আহমদ, মেয়ে তানজিনা আক্তার মঞ্জু, সিনথিয়া আক্তার মিতু ও ছেলে জাবেদ আহমদ।

মামলার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বাদীপক্ষের আইনজীবী রনেন সরকার রনি বলেন, সিলেটের কোম্পানীগঞ্জের বাসিন্দা মুক্তিযোদ্ধা মুহিবুর রহমান মফিজের মৃত্যুর পর তাঁর নাম ব্যবহার করে নগরের হাদারপাড় এলাকার জনৈক মুহিবুর রহমান ভুয়া কাগজপত্র দিয়ে মুক্তিযোদ্ধা ভাতা তুলছিলেন। পরে তিনিও মারা যান। এরপর থেকে তাঁর উত্তরাধিকার হিসেবে মুহিবুর রহমানের স্ত্রী হানুফা বেগম ভাতা তুলে আসছেন। ফলে তাঁকে এবং তাঁর ছেলেমেয়েদের আসামি করে মামলাটি করা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা