kalerkantho

সোমবার । ১৮ নভেম্বর ২০১৯। ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

অগ্নিকাণ্ড

তিন জেলার তিন বাজারে ১৯ দোকান ভস্মীভূত

সিলেটে পুড়ে গেছে চেইন শপ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



জামালপুর, রাজবাড়ী ও রাজশাহী জেলার তিনটি বাজারে আগুনে অন্তত ১৯টি দোকান ভস্মীভূত হয়েছে। এর মধ্যে জামালপুরের মেলান্দহ উপজেলার মাহমুদপুর বাজারে ১০টি দোকান, রাজবাড়ী সদরের বড় বাজারের ইসলাম মার্কেটের পাঁচটি দোকান এবং রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার আমগাছি বাজারের ছয়টি দোকান পুড়ে যায়। সিলেটে একটি চেইন শপে অগ্নিকাণ্ডে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

জামালপুর : বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে মাহমুদপুর বাজারের ব্যবসায়ী শফিক আহমেদের সাদিয়া এন্টারপ্রাইজের সার ও কীটনাশকের দোকান থেকে আগুনের সূত্রপাত হয় বলে স্থানীয়রা জানায়। খবর পেয়ে প্রথমে মেলান্দহ উপজেলা ফায়ার সার্ভিস এবং পরে ইসলামপুর ও মাদারগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসহ আগুন নেভানোর কাজে অংশ নেয়। তিনটি ইউনিট রাত সাড়ে ১২টার দিকে আগুন নেভাতে সক্ষম হয়।

অগ্নিকাণ্ডে মাহমুদপুর বাজারের এক সারিতে থাকা ১০টি দোকান সম্পূর্ণরূপে ভস্মীভূত হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত অন্য দোকানগুলো হলো নজরুল ইসলামের মনির ট্রেডার্স নামের টিনের দোকান, মো. আলমগীর হোসেনের সার ও কীটনাশকের দোকান, সাদিকুল মোর্শেদের নোমান মোবাইল সেন্টার, মাসুদুর রহমানের সার ও কীটনাশকের দোকান, মো. গোলাম মোস্তফার পাটের গুদাম, আব্দুল মালেকের মালেক ডেকোরেটর, ফোটো ঢালির ধানের গুদাম, বিপ্লবের সেলুন ও শমসের আলীর চায়ের দোকান।

জামালপুর ফায়ার সার্ভিসের সহকারী পরিচালক প্রাণনাথ সাহা জানান, বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়ে থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

স্থানীয় সংসদ সদস্য মির্জা আজম গতকাল শুক্রবার সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ব্যক্তিগত তহবিল থেকে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য দুই লাখ ২০ হাজার টাকার আর্থিক সহায়তার ঘোষণা দেন। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্ত প্রতিটি দোকান মালিককে নগদ ২০ হাজার টাকা করে আর্থিক সহায়তা দেওয়া হয়েছে।

রাজবাড়ী : রাজবাড়ী জেলা শহরের বড় বাজারের খলিফাপট্টিসংলগ্ন ইসলাম মার্কেটে ভয়াবহ আগুনে অন্তত পাঁচটি দোকান ছাই হয়ে গেছে। রাজবাড়ীর ফায়ার সার্ভিসের উপসহকারী পরিচালক শওকত আলী জোয়ার্দ্দার জানান, দুই ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে তাঁরা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হন। গতকাল সকাল ৭টার দিকে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে মার্কেটের রিয়াজ স্টোর থেকে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয় বলে ধারণা করা হচ্ছে। আগুনে রিয়াজ স্টোর ও এর গোডাউন, মোহনা কসমেটিকস, মৃধা স্টোর, মোবাইল ক্লিনিক ও দত্ত হার্ডওয়্যারের মালপত্র ভস্মীভূত হয়।

দুর্গাপুর (রাজশাহী) : রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার আমগাছি বাজারে গতকাল বিকেলে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ছয়টি দোকান পুড়ে ছাই যায়। খবর পেয়ে দুর্গাপুর ফায়ার সার্ভিস ঘণ্টাব্যাপী অভিযান চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ততক্ষণে ছয়টি দোকানের মালপত্র পুড়ে ছাই হয়ে যায়। ধারণা করা হচ্ছে, নাজমুলের ইলেকট্রনিকসের দোকানে শর্ট সার্কিটের মাধ্যমে আগুনের সূত্রপাত। আগুনে নাজমুলের ইলেকট্রনিকস, মামুন ট্রেডার্স, শুকুরের হোটেল, জহুরুলের হোমিও দোকান, নিতাই হার্ডওয়্যার্স ও দুলাল স্টোরের দোকান পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

সিলেট : সিলেট নগরের তালতলায় গতকাল সকালে ‘বিগবাজার’ নামের একটি চেইন শপে আগুন লাগে। এতে ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানটি পুড়ে যায়। তবে এই অগ্নিকাণ্ডে কেউ হতাহত হয়নি। সিলেটের ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন কর্মকর্তা শিমুল আহমদ জানান, ঘণ্টাব্যাপী চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। অগ্নিকাণ্ডে আনুমানিক অর্ধকোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

তিনি আরো জানান, বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে লাগা আগুন ছড়িয়ে পড়তে পারত ভবনটির ওপরের আবাসিক হোটেলে। তবে তাত্ক্ষণিক ব্যবস্থা নেওয়ায় অন্য কোনো বিপত্তি ঘটেনি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা