kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৯ নভেম্বর ২০১৯। ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২১ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

প্রস্তুত শহীদ মিনার

প্রভাতফেরি যেসব পথ দিয়ে যাবে

নিজস্ব প্রতিবেদক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি   

২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



প্রভাতফেরি যেসব পথ দিয়ে যাবে

২১ ফেব্রুয়ারি উপলক্ষে গতকাল কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সেনাবাহিনী ও র‌্যাব তল্লাশি চালায়। ছবি : কালের কণ্ঠ

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ভাষাশহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য প্রস্তুত কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার। এরই মধ্যে রুট ম্যাপ তৈরি করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ‘একুশে উদ্‌যাপন কেন্দ্রীয় সমন্বয় কমিটি’। রুট ম্যাপ আজ বুধবার রাত ৮টা থেকে কার্যকর হবে। ২১ ফেব্রুয়ারির প্রথম প্রহরে রাষ্ট্রীয় অতিথিদের শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হবে।

এদিকে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, যদিও নিরাপত্তা হুমকি নেই, তবুও দিবসটিতে সর্বোচ্চ সতর্ক থাকবে ঢাকা মহানগর পুলিশ। গতকাল সকাল ১১টায় নিরাপত্তাব্যবস্থা পরিদর্শন শেষে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে সাংবাদিকদের এ তথ্য দেন ডিএমপি কমিশনার।

প্রভাতফেরির রুট ম্যাপ বিষয়ে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য জনসাধারণ পুরনো হাইকোর্টের সামনের রাস্তা দিয়ে দোয়েল ক্রসিং, বাংলা একাডেমি, টিএসসি মোড়, উপাচার্য ভবনের পাশ দিয়ে নীলক্ষেত পুলিশ ফাঁড়ি মোড়, নিউ মার্কেট ক্রসিং পার হয়ে আজিমপুর কবরস্থানের উত্তর দিকের গেট দিয়ে প্রবেশ করবে। শহীদদের কবর জিয়ারতের পর আজিমপুর কবরস্থানের মূল গেট (দক্ষিণ দিকের) দিয়ে বের হয়ে আজিমপুর সড়ক হয়ে পলাশী মোড় ও ফুলার রোড মোড় হয়ে সলিমুল্লাহ হল ও জগন্নাথ হলের সামনে দিয়ে শহীদ মিনারে যাবে।

কবরস্থানে না গিয়ে বিকল্প পথে যারা শহীদ মিনারে যেতে চায় তারা উপাচার্য ভবন পার হয়ে নীলক্ষেত পুলিশ ফাঁড়ি মোড় থেকে বাঁ দিকের রাস্তা দিয়ে (জহুরুল হক হলের পশ্চিমের রাস্তা) সলিমুল্লাহ হল ও জগন্নাথ হলের সামনের রাস্তা হয়ে শহীদ মিনারে যেতে পারবে। নিউ মার্কেট  ক্রসিং  থেকে  হোম  ইকোনমিকস ও ইডেন কলেজের সামনের রাস্তা দিয়েও আজিমপুর (বেবি আইসক্রিম) মোড়, পলাশী মোড় হয়ে সলিমুল্লাহ হল ও জগন্নাথ হলের সামনের রাস্তা হয়ে শহীদ মিনারে যাওয়া যাবে। শহীদ মিনারে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণের পর সেখান থেকে বিশ্ববিদ্যালয় খেলার মাঠের সামনের রাস্তা দিয়ে দোয়েল চত্বর ও পেছনের রাস্তা দিয়ে চানখাঁর পুল হয়ে শুধু প্রস্থান করা যাবে, শহীদ মিনারের দিকে আসা যাবে না।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, চানখাঁর পুল এলাকা থেকে বকশীবাজার মোড় হয়ে প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের দক্ষিণ পাশের রাস্তা দিয়েও পলাশী মোড় হয়ে সলিমুল্লাহ হল ও জগন্নাথ হলের সামনের রাস্তা দিয়ে শহীদ মিনারে যাওয়া যাবে। টিএসসি মোড় থেকে জগন্নাথ হলের পূর্ব পাশের রাস্তা, অর্থাৎ শিববাড়ীর পশ্চিম পাশ দিয়ে শহীদ মিনারে ও মেডিক্যাল কলেজে যাওয়ার রাস্তা, উপাচার্য ভবন গেট থেকে ফুলার রোড হয়ে ফুলার রোড মোড় পর্যন্ত রাস্তা এবং চানখাঁর পুল থেকে কার্জন হল পর্যন্ত রাস্তা জনসাধারণের যাতায়াতের জন্য সম্পূর্ণ বন্ধ  থাকবে।

এদিকে ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া নগরবাসীর উদ্দেশে বলেছেন, ‘কোনো ব্যাগ, ছুরি, কাচি, দাহ্য পদার্থ, বড় ধরনের ব্যাগ, ট্রলি ব্যাগ, ব্যাকপ্যাক ও অবাঞ্ছিত বস্তু নিয়ে আসবেন না। তল্লাশি চৌকিতে এগুলো অ্যালাউ করা হবে না। নিরাপত্তার স্বার্থে সবাইকে তল্লাশি করার জন্য দীর্ঘ লাইন হবে। এ সময় সবাইকে ধৈর্যধারণ করে পুলিশকে সহযোগিতা করার অনুরোধ জানাই।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা