kalerkantho

সোমবার । ২১ অক্টোবর ২০১৯। ৫ কাতির্ক ১৪২৬। ২১ সফর ১৪৪১       

যোগ হলো আরো তিনটি ব্যাংক

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



অনিয়ম আর তারল্য সংকটে ব্যাংক খাতের নাজুক অবস্থার মধ্যে আরো তিনটি ব্যাংক অনুমোদন দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। অনুমোদন পাওয়া ব্যাংকগুলো হলো—বেঙ্গল কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেড, পিপলস ব্যাংক লিমিটেড ও দ্য সিটিজেনস ব্যাংক লিমিটেড। এই ব্যাংকগুলোর প্রতিটির পরিশোধিত মূলধন হতে হবে ৫০০ কোটি টাকা। এর আগে নতুন ব্যাংকের জন্য ন্যূনতম মূলধন ৪০০ কোটি টাকা নির্ধারণ করা হয়েছিল।

গতকাল রবিবার বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবিরের সভাপতিত্বে পর্ষদসভায় এ তিনটি ব্যাংককে লেটার অব ইনটেন্ট বা সম্মতিপত্র ইস্যু করার এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সভায় উপস্থিত ছিলেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া, অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক বিভাগের সচিব আসাদুল ইসলাম, বোর্ড সদস্য জামাল উদ্দিন এফসিএ, বাংলাদেশ ব্যাংকের ডিজি মনিরুজ্জামান ও বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক আবু ফরাহ মোহাম্মদ নাসের।

আবু ফরাহ মোহাম্মদ নাসের সাংবাদিকদের বলেন, ‘পর্ষদসভায় নতুন তিনটি ব্যাংকের অনুমোদনের ব্যাপারে নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়েছে। এ তিনটি ব্যাংকের পরিশোধিত মূলধন ৪০০ কোটি টাকা থেকে বাড়িয়ে ৫০০ কোটি টাকা করার শর্ত দেওয়া হয়েছে।’ কারণ হিসেবে তিনি বলেন, ‘আমাদের অর্থনীতি, জিডিপির আকার বড় হয়েছে। নতুন ব্যাংকে যেসব গ্রাহক আমানত রাখবেন, তাঁদের স্বার্থরক্ষায় এ শর্ত দেওয়া হয়েছে।’

বাংলাদেশ ব্যাংকের সহকারী মুখপাত্র জি এম আবুল কালাম আজাদ সাংবাদিকদের জানান, নির্বাচনের আগেই বেঙ্গল ব্যাংকের অনুমোদনের ব্যাপারে নীতিগত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। আজকের (গতকাল) সভায় তিনটি ব্যাংককেই চূড়ান্ত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

জানা যায়, আওয়ামী রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত ব্যক্তিরাই ব্যাংকগুলো অনুমোদন পেলেন। নির্বাচনের আগেই ব্যাংক অনুমোদনের তোড়জোড় থাকলেও সেটি দেওয়া হয়নি। বেঙ্গল কমার্শিয়াল ব্যাংকের মালিকানায় রয়েছে প্লাস্টিক পণ্য প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান বেঙ্গল গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজ। আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য মোরশেদ আলম এই গ্রুপের চেয়ারম্যান। তাঁর ছোট ভাই জসিম উদ্দিন প্রস্তাবিত ব্যাংকটির চেয়ারম্যান।

আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের মা জাহানারা হকের নাম প্রস্তাব করা হয়েছে সিটিজেনস ব্যাংকের চেয়ারম্যান হিসেবে। আর যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের নেতা এম এ কাশেমের নাম রয়েছে পিপলস ব্যাংকের চেয়ারম্যান হিসেবে।

ব্যাংক সূত্র জানায়, এ নিয়ে দেশে নিজস্ব ব্যাংকের সংখ্যা দাঁড়াল ৫৩টি। বিদেশি ৯টিসহ ব্যাংকের সংখ্যা মোট ৬২টি। তবে এর মধ্যে ৫৭টি ব্যাংকিং কার্যক্রম পরিচালনা করছে। যার মধ্যে সরকারি ব্যাংক ছয়টি, বিশেষায়িত দুটি, বিদেশি ৯টি, দেশীয় বেসরকারি দুটি আর ইসলামী ব্যাংক আটটি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা