kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২১ নভেম্বর ২০১৯। ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

গণশুনানি করার প্রত্যয় ঐক্যফ্রন্টের

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সরকারের নির্দেশনার কারণে স্থান পাওয়া যাচ্ছে না অভিযোগ করে পূর্বঘোষণা অনুযায়ী ২৪ ফেব্রুয়ারিই গণশুনানি করার দৃঢ়প্রত্যয় ব্যক্ত করেছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। গতকাল রবিবার বিকেলে মতিঝিলে গণফোরামের কার্যালয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের স্টিয়ারিং ও সমন্বয়ক কমিটির যৌথসভার পর জেএসডির সভাপতি আ স ম আবদুর রব এ কথা জানান।

রব বলেন, গণশুনানির কথা শুনে তারা (সরকার) ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ঢাকা শহরের সব হল বুক করে রেখেছে। এর পরও আমরা করব। যত প্রতিবন্ধকতা আসুক, যত হল বন্ধ করুক, যেখানেই পারি আমরা ২৪ ফেব্রুয়ারি ইনশাআল্লাহ ঢাকায় গণশুনানি করবই করব।

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল জানান, গণশুনানির জন্য ঐক্যফ্রন্ট জাতীয় প্রেস ক্লাব মিলনায়তন, রমনার ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তন, গুলিস্তানের মহানগর নাট্যমঞ্চ, কাকরাইলের ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনের কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করা আছে।

আলাল আরো জানান, বৈঠকে বাম জোটগুলো, যারা নির্বাচন বয়কট করেছে তাদের সঙ্গেও আলোচনার সিদ্ধান্ত হয়েছে। তাদের সঙ্গে ভবিষ্যতে যুগপৎ আন্দোলনের বিষয়েও আলোচনা হয়েছে। এসব বিষয় নিয়ে আজ সোমবার ফ্রন্টের সমন্বয় কমিটি ও কাল মঙ্গলবার স্টিয়ারিং কমিটির বৈঠক হবে বলেও জানান আলাল।

বৈঠকে জেএসডির আ স ম আবদুর রব, আবদুল মালেক রতন, শহিদ উদ্দিন মাহমুদ স্বপন, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী, হাবিবুর রহমান, বিএনপির ড. আব্দুল মঈন খান, আবদুস সালাম, মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, গণফোরামের সুব্রত চৌধুরী, মোস্তফা মহসিন মন্টু, জগলুল হায়দার আফ্রিক, মোশতাক আহমেদ, রফিকুল ইসলাম পথিক, নাগরিক ঐক্যের মাহমুদুর রহমান মান্না, শহিদুল্লাহ কায়সার, বিকল্পধারার নুরুল আমিন ব্যাপারী, শাহ আহমেদ বাদল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা