kalerkantho

বৃহস্পতিবার  । ১৭ অক্টোবর ২০১৯। ১ কাতির্ক ১৪২৬। ১৭ সফর ১৪৪১       

সুবর্ণচরে স্কুলছাত্রীকে দলবদ্ধ ধর্ষণ

চার দিনের রিমান্ড দুই আসামির

নোয়াখালী প্রতিনিধি   

১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নোয়াখালীর সুবর্ণচরে ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রীকে দলবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেপ্তার হওয়া দুই আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য চার দিন হেফাজতে রাখার (রিমান্ড) অনুমতি দিয়েছেন আদালত। গতকাল রবিবার রিমান্ড আবেদনের শুনানি শেষে নোয়াখালীর জ্যেষ্ঠ বিচার বিভাগীয় হাকিম নবনীতা গুহ এই আদেশ দেন।

এই দুই আসামি হলেন সুবর্ণচর উপজেলার পূর্ব চরবাটা ইউনিয়নের দক্ষিণ চরমজিদ গ্রামের তৈয়বের ছেলে ইস্রাফিল আজাদ স্বপন (২৩) ও একই এলাকার চান মিয়ার ছেলে নিজাম উদ্দিন (২২)।

চরজব্বর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) ইব্রাহিম খলিল জানান, দুই আসামির পাঁচ দিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করা হয়েছিল আগেই। ধার্য দিন গতকাল বিকেলে তাদের আদালতে হাজির করা হয়। শুনানি শেষে আদালত চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এর আগে গত ১ ফেব্রুয়ারি এই দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়।

উল্লেখ্য, গত ৩১ জানুয়ারি দুপুরে স্থানীয় উচ্চ বিদ্যালয়ের এই ছাত্রী (১৩) তার মাকে হাতিয়া যাওয়ার সময় বাড়ি থেকে এগিয়ে দিতে যায়। বাড়ি ফেরার পথে সিএনজিচালিত অটোরিকশার চালক ইস্রাফিল আজাদ স্বপন তাকে বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার কথা বলে গাড়িতে তোলে। কিন্তু বাড়ি না পৌঁছে দিয়ে স্বপন মেয়েটিকে অটোরিকশায় বিভিন্ন স্থানে ঘুরিয়ে রাত ৯টার দিকে সহযোগী নিজামসহ ধর্ষণ করে। পরদিন ১ ফেব্রুয়ারি সকালে মেয়েটি বাড়ি ফিরে ঘটনা তার পরিবারকে জানায়। ওই দিন রাতেই লোকজন অভিযুক্ত দুজনকে আটক করে পুলিশে দেয়। ২ ফেব্রুয়ারি দায়ের করা ধর্ষণের মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে পুলিশ তাদের আদালতে পাঠায়। একই সঙ্গে তাদের পাঁচ দিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করে পুলিশ। আদালত দুই আসামিকে কারাগারের পাঠানোর আদেশ দেওয়ার পাশাপাশি রিমান্ড আবেদনের ওপর শুনানির জন্য গতকাল রবিবার দিন রেখেছিলেন। গতকাল শুনানি শেষে তাদের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা