kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২১ নভেম্বর ২০১৯। ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

টেকনাফে কথিত বন্দুকযুদ্ধে ইয়াবা কারবারি নিহত

টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি   

২২ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে শামসুল আলম ওরফে শামসু নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছে। সে হ্নীলা ইউনিয়নের পশ্চিম সিকদারপাড়া এলাকার মৃত মোহাম্মদ হোসেনের ছেলে। গতকাল সোমবার ভোরে হ্নীলা ইউনিয়নের লেদা এলাকায় বন্দুকযুদ্ধের ঘটনাটি ঘটে। পুলিশের ভাষ্য, শামসু স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত ইয়াবা কারবারি।

পুলিশ জানায়, গত রবিবার সন্ধ্যায় আটক শামসুলকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তার কাছে ইয়াবা ও অস্ত্র থাকার কথা স্বীকার করে। পরে তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী হ্নীলা ইউনিয়নের লেদা এলাকায় তার আস্তানায় অভিযান পরিচালনা করে পুলিশ। এ সময় সেখানে আগে থেকে ওত পেতে থাকা তার দলের সন্ত্রাসী লোকজন পুলিশের কাছ থেকে তাকে ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় তারা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। পুলিশও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালালে সন্ত্রাসীরা পিছু হটে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল তল্লাশি করে গুলিবিদ্ধ অবস্থায়  শামসুকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

টেকনাফ মডেল থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ বলেন, শামসুল স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত  ইয়াবা কারবারি। পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে সে মারা যায়। এ ঘটনায় তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। এ ছাড়া ঘটনাস্থল থেকে ২০ হাজার ইয়াবা ট্যাবলেট, দুটি আগ্নেয়াস্ত্র এবং গুলির খোসা উদ্ধার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে মাদক, অস্ত্রসহ ১০টি মামলা রয়েছে। তার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার মর্গে পাঠানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, টেকনাফ সীমান্তে মাদকবিরোধী অভিযানের শুরু থেকে এ পর্যন্ত বন্দুকযুদ্ধে ৩৭ জন নিহত হয়েছে।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা