kalerkantho

সোমবার । ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১১ রবিউস সানি ১৪৪১     

ধামরাইয়ে মোটরচালক লীগের সভাপতি গ্রেপ্তার

১০ বাড়িঘর ভাঙচুর

ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি   

১৭ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ঢাকার ধামরাই উপজেলার সূয়াপুর ইউনিয়ন মোটরচালক লীগের সভাপতি আবুল হোসেনকে মঙ্গলবার রাতে একটি মামলায় গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এক নারীকে মারধর করলে ইউনিয়নের সূয়াপুর গ্রামে আবুল হোসেনের লোকজনের বাড়িঘর, দোকানপাট ও কয়েকটি হ্যালোবাইক ভাঙচুর করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন।

গ্রেপ্তারকৃত আবুল হোসেন ধামরাই উপজেলা আওয়ামী লীগের সদ্য সাবেক এমপি এম এ মালেকের অনুসারী। অভিযোগ রয়েছে, এম এ মালেকের আশ্রয়ে তিনি এলাকায় সন্ত্রাসী বাহিনী গড়ে তোলেন। উপজেলা আওয়ামী লীগের আরেক গ্রুপের নেতৃত্ব দিচ্ছেন বর্তমান এমপি বেনজীর আহমদ। এম এ মালেক এমপি থাকাকালীন সময়ে বেনজীর গ্রুপের বেশির ভাগ নেতাকর্মীর ওপর হামলা ও মামলা দিয়ে হয়রানি করা হয়েছে।

গতকাল বুধবার সূয়াপুর গ্রামে গিয়ে জানা যায়, গ্রামের আবুল হোসেনকে মঙ্গলবার রাতে একটি মামলায় আটক করে ধামরাই থানার এসআই মলয় সাহার নেতৃত্বাধীন একদল পুলিশ। তাঁকে গ্রেপ্তারের পর তাঁর গ্রুপের সেলিম হোসেন নামের এক ব্যক্তি গ্রামের হাসি নামের এক নারীকে মারপিট করে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে প্রতিপক্ষের লোকজন আবুল হোসেনের পক্ষের লোক পান্নু মিয়া, রেজ্জাক মিয়া, সেলিম, আবুল, মোতালেব, হালিম, মুন্না, হামিদ, জসিম ও জালাল উদ্দিনের বাড়িতে হামলা চালায়। হামলাকারীরা তাদের বাড়িঘর, দোকানপাট ও দুটি হ্যালোবাইক ব্যাপক ভাঙচুর করে। এ সময় ভয়ে বাড়িঘর ছেড়ে ছোটাছুটি করতে থাকে নারী ও শিশুরা। ভুক্তভোগীরা অভিযোগ করে, প্রতিপক্ষের সোহেল, সাগর, ওয়াসিম, লিটন, শিপন, দেলওয়ার, ফরহাদের নেতৃত্বে ৫০-৬০ জন এ হামলা চালায়। গতকাল সরেজমিনে গিয়ে গ্রামে কোনো পুরুষ পাওয়া যায়নি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা