kalerkantho

সোমবার । ২০ জানুয়ারি ২০২০। ৬ মাঘ ১৪২৬। ২৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

জমজমাট ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৫ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জমজমাট ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব

চলচ্চিত্র প্রদর্শনী, আলোচনা, সিম্পোজিয়ামসহ নানা আয়োজনে জমজমাট ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব। ‘নান্দনিক চলচ্চিত্র, মননশীল দর্শক, আলোকিত সমাজ’ স্লোগানে রেইনবো চলচ্চিত্র সংসদের আয়োজনে বসেছে উৎসবের সপ্তদশ আসর। গতকাল সোমবার নিয়মিত প্রদর্শনী ছাড়াও ঢাকা ক্লাবে চলচ্চিত্র বিষয়ক এক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

‘ওয়েস্ট মিটস ইস্ট’ শীর্ষক দিনব্যাপী সেমিনারে বিশ্বখ্যাত চলচ্চিত্র তাত্ত্বিক ও প্রযোজক সিডনি লেভিন বলেন, চলচ্চিত্রের আন্তর্জাতিক বাজার ধরতে হলে নির্মাতা বা সংশ্লিষ্টদের স্বনামখ্যাত হতে হবে এমন না, বরং চলচ্চিত্র মানসম্পন্ন হওয়া জরুরি। দিন শেষে পর্দায় আমরা কী দেখছি সেটা গুরুত্বপূর্ণ। ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের অংশ হিসেবে গতকাল সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত রাজধানীর ঢাকা ক্লাবে আয়োজন করা হয় দিনব্যাপী তথ্য আদান-প্রদনমূলক অনুষ্ঠান ‘ওয়েস্ট মিটস ইস্ট’। এখানে বাংলাদেশের চলচ্চিত্র প্রযোজক, পরিচালক, নির্মাতাসহ উৎসবে আগত আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র বাজারের প্রযোজক, পরিবেশন, পরিচালক, নির্মাতা, উৎসব সংশ্লিষ্টরা অংশগ্রহণ করেন।

অনুষ্ঠানে সিডনি বলেন, পশ্চিমারা শিল্প বা আর্ট তৈরি করছে সত্যি, তবে সেটা কুক্ষিগত নয়। যে কেউ সেটাকে ব্যবহার করে নতুনত্ব তৈরি করতে পারে। তাই সবার আগে উচিত নিজের কাজটি বোঝা ও মূল্যায়ন করা।

অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে স্বনামধন্য বাংলাদেশি নির্মাতা ও অভিনেতা তৌকীর আহমেদ বলেন, দেশীয় নির্মাতাদের ক্ষেত্রে অন্যতম বড় প্রতিবন্ধকতা হলো অর্থলগ্নি, ফলে পশ্চিমাদের তুলনায় দেশীয় নির্মাতারা অনেক কম বাজেটে চলচ্চিত্র নির্মাণ করতে বাধ্য হচ্ছে। এতে করে চলচ্চিত্রের গুণগত মান নিয়ে বেশি ভাবার সুযোগ তৈরি হচ্ছে না। আলোচনায় আরো অংশ নেন

আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী, ভারতীয় চলচ্চিত্র নির্মাতা বিজয়া জেনা প্রমুখ।

‘নিশিকাব্য’ নাটকের উদ্বোধনী মঞ্চায়ন : নাটকের প্রতি দায়বদ্ধতা আর ভালোবাসায় জন্ম নিল আরো একটি নাট্যদল। নাটুয়া নামের এ নাট্যদলটি নিশিকাব্য নামের নাটক মঞ্চায়নের মধ্য দিয়ে তাদের যাত্রা শুরু করেছে। মুহম্মদ জাফর ইকবালের ছোটগল্প ‘মধ্যরাত্রিতে তিনজন দুর্ভাগা তরুণ’ অবলম্বনে নিশিকাব্য নাটকটি লিখেছেন মঈন উদ্দিন পাঠান।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা