kalerkantho

শনিবার । ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৯ রবিউস সানি ১৪৪১     

শরিফুলকে ফেরাতে সরকারের সাহায্য চায় পরিবার

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, কুড়িগ্রাম   

১৫ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



কুড়িগ্রামের রৌমারীর ধনারচর মধ্যপাড়া এলাকার বাসিন্দা শরিফুল ইসলাম (৫০) প্রায় চার মাস ধরে ভারতের কারাগারে বন্দি। পরিবারের দাবি, তিনি নিরাপরাধ; ভারতের পুলিশ বিনা অপরাধে তাঁকে বন্দি করেছে। এ অবস্থায় শরিফুলকে ফেরাতে বাংলাদেশ সরকারের সহযোগিতা চেয়েছে তাঁর পরিবার।

শরিফুলের বাবা ইয়াকুব আলী পেশায় কৃষক। তাঁর ভাষ্য, ‘আমার ছেলে বৈধভাবে গত সেপ্টেম্বরে ভারতে এক আত্মীয়ের বাড়ি বেড়াতে যায়। তার সঙ্গে বাংলাদেশের পাসপোর্ট ও ভারতের ভিসাও ছিল। আসার সময় ভারতের ধুবরি জেলার হাটসিংমারী থানা পুলিশ তাকে বিনা কারণে গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে পাঠায়। বর্তমানে সে ধুবরি জেলা কারাগারে বন্দি রয়েছে। আমি বাংলাদেশ সরকারের কাছে আমার সন্তানকে ফিরিয়ে আনার দাবি জানাচ্ছি।’

শরিফুল ইসলামের মা সুফিয়া বেগম বলেন, ‘চার মাস হলো ছেলেকে দেখি না। তাঁর স্ত্রী ও অবুঝ এক সন্তান রয়েছে। আমরা গরিব মানুষ। ভারতের জেল থেকে মুক্ত করতে অনেক টাকা লাগে। তা ছাড়া আমার ছেলে তো কোনো দোষ করেনি।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা