kalerkantho

বিএনপির নারী প্রার্থীদের সঙ্গে ইইউ প্রতিনিধি দলের বৈঠক

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১১ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী বিএনপির নারী প্রার্থীদের সঙ্গে বৈঠক করেছে ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) একটি প্রতিনিধিদল। এই প্রতিনিধিদলে ছিলেন নির্বাচন বিশেষজ্ঞ এরিনি মারিয়া গৌনারি ও ডেভিড নোয়েল ওয়ার্ড।

বিএনপির নারী প্রার্থীদের মধ্যে ছিলেন ফরিদপুর-২ আসনের শামা ওবায়েদ, ঝালকাঠি-২ আসনের জিবা আমিন খান ও সিরাজগঞ্জ-২ আসনের রুমানা মাহমুদ। গতকাল বৃহস্পতিবার গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে সকাল সাড়ে ১০টা থেকে দেড় ঘণ্টাব্যাপী এই বৈঠকে হয়।

বৈঠকের পর শামা ওবায়েদ সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা যাঁরা নারী প্রার্থী ছিলাম তাঁদের কাছ থেকে নির্বাচনের ঘটনার বিষয়ে জানতে এসেছে ইউরোপীয় ইউনিয়নের একটি টেকনিক্যাল টিম। আমরা আমাদের নির্বাচনী এলাকায় ভোটের অবস্থা, পরিবেশসহ ক্ষমতাসীন দল ও প্রশাসনের কর্মকাণ্ড তথ্য-প্রমাণসহ তাদের কাছে উপস্থাপন করেছি।’

আপনারা কী বললেন জানতে চাইলে শামা বলেন, যেসব খবর আন্তর্জাতিক মিডিয়ায় এসেছে, জাতীয়ভাবে প্রকাশিত হয়েছে এবং তারা নিজেরা বিভিন্ন কেন্দ্র ঘুরে ঢাকায় ৩০ তারিখে যেসব জানতে পেরেছে, সেটা আমাদের চেয়ে তাদের বেশি জানা। আমরা তাদের যেটা বললাম, ৩০ তারিখে নির্বাচন হয়নি। যেমন আমি ফরিদপুরে নির্বাচন করেছি, আমাদের এলাকায় ২৯ তারিখে নির্বাচন হয়ে যায় এবং পুলিশ, র‌্যাব, বিজিবি দিয়ে নির্বাচন হয়ে যায়। নির্বাচনের দিন সব এজেন্টকে বের করে দেওয়া হয় এবং মূলত ৩০ তারিখের নির্বাচনটা ২৯ তারিখে সরকার করেছে।

তারা কোনো মতামত দিয়েছে কি না নির্বাচন নিয়ে—এই প্রশ্নের জবাবে শামা বলেন, তারা তথ্য কালেক্ট করছে, এগুলো নিয়ে রিপোর্ট করবে। তারপর তারা কোনো স্টেটমেন্ট করবে। আমরা নির্বাচনী ট্রাইব্যুনালে যাব, আপিল করব, সেগুলো নিয়ে কথা হয়েছে।’

ইইউ প্রতিনিধিদল নির্বাচন নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে কি না, জানতে চাইলে শামা বলেন, তারা অত্যন্ত উদ্বিগ্ন, তারা নির্বাচন প্রসেস নিয়ে উদ্বিগ্ন। তারা যেহেতু ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতিনিধিত্ব করছে। তারা তো ওভাবে কথা বলতে পারে না। কিন্তু তারা অবশ্যই উদ্বিগ্ন। রিপোর্ট বানানোর আগে হয়তো কিছু বলবে না। এ সময় বিএনপির রুমানা মাহমুদ, জেবা আমিন খান উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য