kalerkantho

সোমবার । ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১১ রবিউস সানি ১৪৪১     

‘সংখ্যালঘুদের ওপর হামলাকারীরাই ফের মনোনয়ন পেয়েছে’

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৩ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সংখ্যালঘুদের ওপর হামলার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে বিভিন্ন দল থেকে মনোনয়ন দেওয়ায় হতাশা ব্যক্ত করেছে বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ। পরিষদ বলেছে, এ রকম ব্যক্তিরা আবার নির্বাচিত হলে দেশে সংখ্যালঘু সম্প্রদায় ঝুঁকির মধ্যে পড়বে।

গতকাল রবিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে রাজনৈতিক দল ও জোটের সংখ্যালঘু প্রার্থী মনোনয়ন নিয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট রানা দাশগুপ্ত এসব কথা বলেন। ঐক্য পরিষদের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ড. নিমচন্দ্র ভৌমিকের সভাপতিত্বে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য উপস্থাপন করেন অ্যাডভোকেট রানা দাশগুপ্ত। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ঐক্য পরিষদের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য কাজল দেবনাথ, শ্রীমতী জয়ন্তী রায়, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ভিক্ষু সুনন্দ প্রিয়, মনিন্দ কুমার নাথ প্রমুখ।

রানা দাশগুপ্ত বলেন, ‘২০০১ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত সারা দেশে সংখ্যালঘুদের ওপর বর্বরোচিত হামলার ঘটনা ঘটেছে। পরবর্তী সময়ে এই ঘটনা তদন্ত করে সাহাবুদ্দীন কমিশন। আদালতের নির্দেশে এই তদন্ত কমিশন তদন্ত শেষ করলেও আলোর মুখ দেখেনি প্রতিবেদন। তবে সেই প্রতিবেদনের খসড়া ঐক্য পরিষদের হাতে এসেছিল। বিএনপি-জামায়াত জোটের ক্ষমতাকালীন সংঘটিত এসব সংখ্যালঘু নির্যাতনের ঘটনায় তখনকার ২৯ মন্ত্রী সরাসরি জড়িত থাকার কথা উঠে আসে ওই প্রতিবেদনে। আগামী জাতীয় নির্বাচনে ওইসব চিহ্নিত ব্যক্তিদের বেশির ভাগই দলীয় মনোনয়ন পেয়েছে। এটি শঙ্কার বিষয়।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা