kalerkantho

অ্যাটর্নি জেনারেল বললেন

দ্রুতই হাইকোর্টে শুনানির পদক্ষেপ নেওয়া হবে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১২ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেছেন, নিম্ন আদালত থেকে ডেথ রেফারেন্স আসার পরপরই যত দ্রুত সম্ভব ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় হাইকোর্টে শুনানির পদক্ষেপ নেওয়া হবে। রায়ের কপি পাওয়ার পর তা পর্যালোচনা করে দেখা হবে। রায়ে যদি তারেক রহমানকে নাটের গুরু বলা হয়ে থাকে তবে তাঁর দণ্ড বাড়াতে রাষ্ট্রের পক্ষ থেকে আপিল করা হবে। তবে সবটাই নির্ভর করছে রায় পর্যালোচনার ওপর।

গতকাল বৃহস্পতিবার অ্যাটর্নি জেনারেল কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন মাহবুবে আলম। এ সময় তিনি বলেন, ‘গ্রেনেড হামলা মামলার রায়ে যদি তারেক রহমানকে নাটের গুরু বলা থাকে তবে এই মামলায় তাঁর মৃত্যুদণ্ড হওয়া উচিত ছিল। আমার মনে হয় অন্যদের মতো তারেক রহমানেরও মৃত্যুদণ্ড হওয়া উচিত ছিল।’

তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনার বিষয়ে মাহবুবে আলম বলেন, আন্তর্জাতিক আইন অপরাধীকে আশ্রয় দেওয়া সমর্থন করে না। তারেক রহমানের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হওয়ায় তাঁকে ফিরিয়ে আনতে কষ্ট হবে না। মৃত্যুদণ্ড হলে অসুবিধা ছিল। কারণ মৃত্যুদণ্ডের ক্ষেত্রে বাইরের দেশে রাজনৈতিক আশ্রয় দেওয়া হয়।

অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, এই মামলায় একজন পাকিস্তানির সাজা হয়েছে। অনুমান করছি, বাংলাদেশের ক্ষতি করার জন্য, নেতৃত্বশূন্য করতে এখনো পাকিস্তান সক্রিয়। বাংলাদেশকে অস্থিতিশীল করতে পাকিস্তানের ইন্ধন থাকতে পারে। সাজাপ্রাপ্ত ওই পাকিস্তানি নাগরিকের ঘটনায় সে ব্যাপারে যথেষ্ট সন্দেহ রয়েছে।

মন্তব্য