kalerkantho

মঙ্গলবার। ২০ আগস্ট ২০১৯। ৫ ভাদ্র ১৪২৬। ১৮ জিলহজ ১৪৪০

নাটোর ও নারায়ণগঞ্জে পানিতে ডুবে চার শিশুর মৃত্যু

গোপালগঞ্জে নিখোঁজ ১

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নাটোরের লালপুরে পানিতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু হয়েছে। নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে ডুবে মৃত্যু হয়েছে দুই চাচাতো বোনের।  এ ছাড়া গোপালগঞ্জে মধুমতি নদীতে ডুবে নিখোঁজ হয়েছে আরেক শিশু। বিস্তারিত প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে—

নাটোর প্রতিনিধি জানায়, সেখানে মারা যাওয়া দুই শিশু হলো লালপুর উপজেলার ওয়ালিয়া পশ্চিমপাড়া গ্রামে আদম হোসেনের ছেলে নাইম (৯) ও তার খালাতো বোন আফিয়া (৭)। আফিয়া রাজশাহী শহরের বেলদারপাড়া এলাকা থেকে পরিবারের সঙ্গে বেড়ানোর জন্য নানার বাড়ি এসেছিল।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, নাইম ও আফিয়া গতকাল সকালে বাড়ির পাশে হাকিম চেয়ারম্যানের পুকুরে গোসল করতে নেমে ডুবে যায়। পরে বাড়ির লোকজন খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে পুকুর থেকে তাদের লাশ উদ্ধার করে। লালপুর থানার ওসি নজরুল ইসলাম জুয়েল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

আড়াইহাজার (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি জানান, বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলার মাহমুদপুর ইউনিয়নের গহরদী মুল্লুকসাদী গ্রামে পানিতে ডুবে দুই বোনের মৃত্যু হয়। নিহতরা হলো ওই গ্রামের  সাইদুলের মেয়ে উম্মে হানী (৬) ও তার ভাই ফেরদাউসের মেয়ে মাহিনুর (৫)। নিহত উম্মে হানী সালমদী সানরাইজ কিন্ডারগার্টেন  স্কুলের নার্সারি এবং মাহিনুর একই স্কুলের প্লে গ্রুপের ছাত্রী।

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, এদিকে গতকাল গোপালগঞ্জের মধুমতী নদীতে গোসল করতে নেমে নিখোঁজ হয় নিশান বৈরাগী (৭) নামের এক শিশু। গতকাল সন্ধ্যা পর্যন্ত তার সন্ধান পাওয়া যায়নি। সে উপজেলার উলপুর ইউনিয়নের আন্দারকোটা গ্রামের গৌতম বৈরাগীর ছেলে। স্থানীয়রা জানায়, গতকাল সকাল ১০টার দিকে  সাত থেকে আট শিশু মধুমতী নদীর বিলরুট ক্যানালে গোসল করতে নামে।

কিছু সময় পর নিশান বৈরাগী (৭) ও প্রশান্ত বৈরাগী (৭) নামের দুই শিশু নিখোঁজ হয়। এলাকাবাসী নদীতে নেমে প্রশান্তকে জীবিত উদ্ধার করতে পারলেও নিশানকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।

মন্তব্য