kalerkantho

মঙ্গলবার। ২০ আগস্ট ২০১৯। ৫ ভাদ্র ১৪২৬। ১৮ জিলহজ ১৪৪০

খুলনায় নিখোঁজ শিক্ষকের লাশ মিলল ডোবায়

খুলনা অফিস   

১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কিন্ডারগার্টেন স্কুলের শিক্ষক কাজী তাসকিন হোসেন তয়ন (৩২) নিখোঁজ হওয়ার ১৫ দিন পর তাঁর লাশ উদ্ধার হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সকালে শিল্পনগরী খুলনার বয়রা আনসার উদ্দিন সড়কের পাশের ডোবা থেকে খালিশপুর থানা পুলিশ তাঁর মরদেহ উদ্ধার করেছে। তিনি নগরীর মুজগুন্নি এলাকার বাসিন্দা কাজী ফেরদৌস হোসেন তোতার ছেলে। নিহতের স্ত্রী আফরোজা খাতুন পাঁচ মাসের অন্তঃসত্ত্বা।

পরিবার ও পুলিশ জানায়, তাসকিন হোসেন তয়ন গত ২৮ আগস্ট গভীর রাতে বাড়ির অদূরে আফজালের মোড়ে চা খেতে যান। প্রতিবেশী চাচাতো ভাই কাজী মুরাদ সে সময় তাঁর সঙ্গে ছিলেন। চা পানের উদ্দেশ্যে বের হয়ে তয়ন নিখোঁজ হন। বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করেও না পেয়ে দুই দিন পরে তয়নের বাবা থানায় জিডি ও এর পরে কাজী মুরাদসহ দুই-তিনজনকে আসামি করে খালিশপুর থানায় অপহরণ মামলা করেন। পুলিশ সোমবার রাতে ওই মামলায় তয়নদের প্রতিবেশী হাসান গাজীর ছেলে সাইফুল গাজীকে গ্রেপ্তার করে। তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশ তয়নের মরদেহের সন্ধান পায়।

কাজী ফেরদৌস হোসেন তোতা বলেন, ‘আমার ছেলেকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। জমিসংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে মুরাদ ও তার সহযোগীরা এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে।’

খালিশপুর থানার ওসি সরদার মোশাররফ হোসেন কালের কণ্ঠকে বলেন, অপহরণ মামলার সূত্র ধরে তয়নের হত্যাকারীরা শনাক্ত হয়েছে। একজন এরই মধ্যে গ্রেপ্তার হয়েছে। অন্যদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে। আগে করা অপহরণ মামলাটিই এখন হত্যা মামলায় রূপান্তরিত হবে।

 

মন্তব্য