kalerkantho

নলছিটি নন্দীগ্রামে দুই প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণ

চাটমোহরে গৃহবধূ ও শাজাহানপুরে শিশুকে যৌন নির্যাতন

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৫ জুলাই, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



নলছিটি নন্দীগ্রামে দুই প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণ

ঝালকাঠির নলছিটি ও বগুড়ার নন্দীগ্রামে দুই প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। পাবনার চাটমোহরে গৃহবধূ ও বগুড়ার শাজাহানপুরে ছয় বছরের শিশুকে ধর্ষণ করা হয়েছে। এ ছাড়া নরসিংদীর মাধবদী, বগুড়ার নন্দীগ্রাম, ফরিদপুরের মধুখালী ও বরিশালের বাবুগঞ্জে আলাদা ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ব্যাপারে আমাদের নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

ঝালকাঠি : নলছিটিতে প্রতিবন্ধী এক তরুণীকে (১৯) ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দেওয়া হলে ক্ষুব্ধ অভিযুক্তের পরিবারের হামলায় দুই নারী আহত হয়েছেন। আহতদের গতকাল রবিবার সকালে নলছিটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ দুপুরে অভিযুক্ত নাঈম হাওলাদারকে (১৪) আটক করেছে। জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার সকালে কাঁথা সেলাইয়ের কথা বলে বাসা থেকে ডেকে নেয় প্রতিবেশী নাঈম হাওলাদার। তাদের ঘরে কেউ না থাকায় নাঈম ওই তাঁকে ধর্ষণ করে। তাঁর চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা ঘটনাস্থলে এলে নাঈম পালিয়ে যায়। নাঈমের পরিবার বিষয়টি কাউকে না জানানোর জন্য চাপ প্রয়োগ করে। বিষয়টি জানাজানি হওয়ায় শনিবার সকালে তরুণীর নানি নলছিটি থানায় অভিযোগ করেন। পুলিশ বিকেলে ঘটনাস্থলে তদন্ত করতে গেলে প্রতিবেশী দুই নারী সত্যতা স্বীকার করে সাক্ষী দেন। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে নাঈমের মা আমেনা বেগম ও ফুফু পিয়ারা বেগম দুই সাক্ষীকে রবিবার সকালে পিটিয়ে আহত করেন।

নন্দীগ্রাম (বগুড়া) : নন্দীগ্রামে বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী এক কিশোরীকে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে আটকে রেখে ধর্ষণ করেছে এক যুবক। গত শনিবার রাতে গ্রামবাসী ঘরের তালা ভেঙে ধর্ষিতাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করিয়েছে। ঘটনার পর থেকে ধর্ষক মোয়াজ্জেম পলাতক।

স্থানীয়রা জানায়, নন্দীগ্রামের বাঁশো দীঘিরপাড় গ্রামের আয়েজ উদ্দিনের ছেলে মোয়াজ্জেম হোসেন (৩০) পাশের ছোট চাঙ্গুইর গ্রামের এক বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী কিশোরীর (১৫) সঙ্গে মোবাইল ফোনে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। গত শুক্রবার মোয়াজ্জেমের বাড়িতে স্ত্রী-সন্তান না থাকার সুযোগে রাতে বিয়ের প্রলোভনে তার বাড়িতে ডেকে নিয়ে ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করে। পরে শনিবার সারা দিন তাকে ঘরে তালাবদ্ধ করে রাখে। এদিকে শনিবার সকাল থেকে পরিবারের লোকজন ওই কিশোরীকে খুঁজতে থাকে। সন্ধ্যার পর মেয়েটির চিৎকারে গ্রামের লোকজন জানতে পেরে ঘরের তালা ভেঙে তাকে উদ্ধার করে। এ সময় ধর্ষক মোয়াজ্জেম বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যায়।

এদিকে নন্দীগ্রামে তৃতীয় শ্রেণির স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ মামলার আসামি এক স্কুলছাত্রকে (১৫) শনিবার রাতে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সে বুড়ইল ইউনিয়নের কুন্দারহাট ইনছান আলী দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র। গত ৫ জুলাই রাসেল মাহমুদের বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে ওই শিশুকে কৌশলে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করে।

চাটমোহর (পাবনা) : চাটমোহরের বিলচলন ইউনিয়নের সোনাহারপাড়া গ্রামে এক গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল দুপুরে ওই গৃহবধূ চাটমোহর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন। ধর্ষক একই গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য শহিদুল ইসলামের ছেলে সেলিম হোসেন (২৭)। সে ওই গৃহবধূর দূর সম্পর্কের মামাশ্বশুর। অভিযোগ পেয়ে পুলিশ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্তকে আটক করেছে।

শাজাহানপুর (বগুড়া) : শাজাহানপুরের চোপীনগর ইউনিয়নের বিহিগ্রাম পূর্বপাড়ায় ছয় বছরের এক শিশুকে ধর্ষণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় গতকাল দুপুরে শিশুটির মা বাদী হয়ে থানায় মামলা করেছেন। এ ঘটনায় অভিযুক্ত মৃত মকবুল হোসেনের ছেলে দুলাল মিয়াকে ধরতে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

নরসিংদী : নরসিংদীতে নিজের ১২ বছর বয়সী মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে মমিন মিয়া (৩৫) নামের এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল রবিবার দুপুরে তাকে মাধবদী পৌর আনন্দি এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। সে কুষ্টিয়া সদর উপজেলার হরি নারায়ণপুর এলাকার মৃত মিরাজুল ইসলামের ছেলে।

ফরিদপুর : মধুখালীতে সাত বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টার ঘটনায় আমিরুল ইসলাম নামের এক মহেন্দ্রচালককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গত শনিবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে ওই উপজেলার নওপাড়া ইউনিয়নের একটি গ্রামে। এ ব্যাপারে মধুখালী থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা হয়েছে।

বাবুগঞ্জ (বরিশাল) : বাবুগঞ্জে পাঁচ বছর বয়সী শিশুকে যৌন নিপীড়নের মামলায় গতকাল সকালে কামাল সিকদার (৬০) নামের এক বৃদ্ধকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এর আগে গত শনিবার রাতে ওই শিশুর মা বাদী হয়ে কামালকে আসামি করে থানায় মামলা করেন। কামাল সিকদার বাবুগঞ্জের চাঁদপাশা ইউনিয়নের গাজীপুর গ্রামের বাসিন্দা।

মন্তব্য