kalerkantho

সোমবার। ৪ মাঘ ১৪২৭। ১৮ জানুয়ারি ২০২১। ৪ জমাদিউস সানি ১৪৪২

আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান

বাংলাদেশে এখন কী হচ্ছে তা নোট করুন : ফখরুল

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৩ জুলাই, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মানবাধিকার লঙ্ঘন করে আওয়ামী লীগ ক্ষমতাকে চিরস্থায়ী করতে চায়—এমন মন্তব্য করে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘আমি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে অনুরোধ জানাব, বাংলাদেশে এখন কী হচ্ছে, তা নোট করুন।’ গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় গুলশানে লেক শোর হোটেলে বিএনপির উদ্যোগে ‘বাংলাদেশের মানবাধিকার পরিস্থিতি’ শীর্ষক এক গোলটেবিল আলোচনায় মির্জা ফখরুল এ কথা বলেন।

আলোচনার শুরুতেই ২০০৯ থেকে ২০১৮ সালের জুন পর্যন্ত দেশের মানবাধিকার পরিস্থিতির ওপর ‘রাইট টু লাইফ : এ ফার ক্রাই ইন বাংলাদেশ’ শিরোনামে ১৫ মিনিটের একটি প্রামাণ্যচিত্র উপস্থাপন করা হয়। বর্তমান সরকারের শাসনামলে সংঘটিত গুম, খুন, বিচারবহির্ভূত হত্যার তালিকা ও সংখ্যার আলোকে এই তথ্যচিত্র নির্মিত। তালিকাটি করা হয়েছে মানবাধিকার সংস্থা অধিকার এবং আইন ও সালিশ কেন্দ্রের তথ্য ব্যবহার করে।

তথ্যচিত্রটি দেখানোর পর মির্জা ফখরুল বলেন, ‘তথ্যচিত্র প্রদর্শনের পর বলার কিছু থাকে না। প্রতিদিন আমরা পত্রপত্রিকায় দেখছি দেশে মাদক নিয়ন্ত্রণের নামে লাশ পরে থাকে। নারীরা তাদের সম্ভ্রম হারাচ্ছে, শিশুরা নির্যাতিত হচ্ছে। বিরোধী রাজনৈতিক দলের ওপর কত কী নির্যাতন করা হচ্ছে। ভিন্নমত পোষণকারীদের হাতুড়িপেটা করা হচ্ছে।’

বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘আজকে শুধু এনফোর্স ডিস-অ্যাপিয়ারেন্স নয়, আমাদের হিসাবে পাঁচ শর অধিক নেতা হারিয়ে গেছেন, খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। আমাদের হিসাবে ১০ হাজারের অধিক নেতাকর্মীকে রাজনৈতিকভাবে হত্যা করা হয়েছে। এক মাস আগে পর্যন্ত সারা দেশে আমাদের নেতাদের বিরুদ্ধে ৭৮ হাজার মামলা করা হয়েছে, ১৮ লাখ মানুষকে অভিযুক্ত করা হয়েছে।’

নির্বাচনী প্রক্রিয়াকে নানা কৌশলে সম্পূর্ণভাবে সরকার আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও প্রশাসন দিয়ে নিয়ন্ত্রণ করছে এবং ফলাফল নিজের করায়ত্ত করছে—এমন অভিযোগ করে ফখরুল বলেন, এখন ভোটাররা তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারে না, বিরোধী দলের এজেন্টরা কেন্দ্রে যেতে পারে না। স্থানীয় সরকার নির্বাচনগুলোতে ভোটে অনিয়মের প্রসঙ্গ টেনে বর্তমান সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন হবে না বলে মন্তব্য করেন তিনি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা