kalerkantho

রবিবার । ২১ জুলাই ২০১৯। ৬ শ্রাবণ ১৪২৬। ১৭ জিলকদ ১৪৪০

সংবাদ সম্মেলনে ক্যাব

বিদ্যুতের দাম না কমালে আইনি ব্যবস্থা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৮ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিদ্যুতের দাম ১০ দিনের মধ্যে না কমালে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনের (বিইআরসি) বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেবে কনজ্যুমার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব)। গতকাল রবিবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে ভোক্তা অধিকার সংগঠনটির পক্ষ থেকে এ হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়। গত বছর গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির আদেশ বাতিলের দাবিতে উচ্চ আদালতে মামলা করে ক্যাব এবং আদালত এক বছরে দুই ধাপে গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির আদেশ বাতিল করে দেন।

সংবাদ সম্মেলনে ক্যাবের জ্বালানি উপদেষ্টা অধ্যাপক শামসুল আলম বলেন, বিইআরসি আইন ভেঙে গত ২৩ নভেম্বর খুচরা বিদ্যুতের দাম ইউনিটে ৩৫ পয়সা বৃদ্ধি করেছে। দাম সমন্বয়ের গণশুনানিতে ক্যাব সুনির্দিষ্ট তথ্য-উপাত্যের ভিত্তিতে দাম কমানোর পক্ষে মত দিয়েছিল। এরপর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের জ্বালানি বিভাগের সঙ্গে একটি মতবিনিময় করে সেখানেও বিদ্যুতের দাম কমানোর সুপারিশ করেছিল ক্যাব। তবে ক্যাবের এসব সুপারিশ উপেক্ষা করে ২৩ নভেম্বর খুচরা বিদ্যুতের দাম ইউনিটে ৩৫ পয়সা বৃদ্ধির আদেশ দেয় বিইআরসি।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, ভুল নীতি এবং দুর্নীতির কারণে বিদ্যুৎ উত্পাদনের ব্যয় বাড়ছে, যার সবটাই ভোক্তার কাছ থেকে তুলে নেওয়া হচ্ছে।

সংবাদ সম্মেলনে ক্যাব ১৫টি দাবি তুলে ধরে। এর মধ্যে বিদ্যুৎ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের বিদ্যুৎ খাতের বিভিন্ন কম্পানি থেকে অবমুক্তি দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। বিদ্যুৎ এবং জ্বালানি বিভাগের সব কম্পানির পরিচালনা পর্ষদে মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা রয়েছেন। ক্যাব বলছে যেহেতু মন্ত্রণালয় নিয়ন্ত্রকের ভূমিকা পালন করে, তাই তারা কম্পানির ব্যবসার সঙ্গে থাকতে পারে না। সংবাদ সস্মেলনে ক্যাবের জ্বালানি উপদেষ্টা অধ্যাপক শামসুল আলম লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ক্যাবের চেয়ারম্যান গোলাম রহমান ছাড়াও সংগঠনের নেতারা।

মন্তব্য