kalerkantho

শনিবার ।  ২১ মে ২০২২ । ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৯ শাওয়াল ১৪৪৩  

শিক্ষকদের ওবায়দুল কাদের

সব কিছু আ. লীগের সঙ্গে মেলাবেন না

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি   

১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



শিক্ষকদের উদ্দেশে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘সক্রিয় রাজনীতি যতই কম করবেন, ততই শিক্ষার্থীদের জন্য ভালো। সব কিছু আওয়ামী লীগের সঙ্গে মিলিয়ে ফেলবেন না। আপনাদের স্বকীয়তা, স্বাতন্ত্র্য বজায় রাখুন। ’

গতকাল শুক্রবার বিকেলে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের জুবেরী ভবনে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি আয়োজিত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বিজ্ঞাপন

শিক্ষকদের উদ্দেশে ওবায়দুল কাদের আরো বলেন, ‘শিক্ষক রাজনীতির সঙ্গে ছাত্র রাজনীতি এক কাঁতারে নিয়ে আসবেন না। এটা শিক্ষক রাজনীতির জন্যেও শুভ নয়, ছাত্র রাজনীতির জন্যও শুভ নয়; রাজনীতি তার আকর্ষণ হারিয়ে ফেলে। ’

শিক্ষার মান নিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘যেখানেই যাই—সবাই বলেন, ভবন দেন, ভবন দেন। এত ভবন হচ্ছে, কিন্তু শিক্ষার মান তো বাড়ছে না। সব পরিস্থিতি দেখে আমার মনে হয় আমরা এখন শিক্ষার্থী পাচ্ছি না, পরীক্ষার্থী পাচ্ছি। ’ শিক্ষার গুণগতমানের প্রতি শিক্ষকদের গুরুত্ব দেওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

জঙ্গি তৎপরতা প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমরা শোলাকিয়া, হলি আর্টিজান থেকে এখনো বের হতে পারিনি। আরো আশকোনা, কল্যাণপুর আসবে না, আরো রেজাউল করিম সিদ্দিকী হত্যা হবে না, তা কিন্তু আমরা নিশ্চিত করে বলতে পারি না। ’ তিনি বলেন, ‘তারা কিন্তু সুইসাইড বোম্বার হিসেবে আঘাত হানবে। তারা এখন চুপচাপ আছে। তারা যে আবার আঘাত হানবে না এ কথা কি কেউ বলতে পারবেন? আমাদের অভিন্ন শত্রু হলো দারিদ্র্য, আমাদের অভিন্ন বিপদ হলো ধর্মীয় বিষয়। এসব মোকাবিলায় আমরা কি পারি না একসঙ্গে কাজ করতে?’

সভায় ১৯৬৯ সালের গণ-অভ্যুত্থানে শহীদ বুদ্ধিজীবী, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. শামসুজ্জোহার মৃত্যুবার্ষিকীকে (১৮ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় শিক্ষক দিবস হিসেবে ঘোষণার দাবি করে শিক্ষক সমিতি। এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে আলোচনা করবেন বলে আশ্বাস দেন ওবায়দুল কাদের।

শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. শহীদুল্লাহর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক শাহ আজম শান্তনুর সঞ্চালনায় সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক এম সাইদুর রহমান খান ও বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মূল্যবোধে বিশ্বাসী প্রগতিশীল শিক্ষকসমাজের আহ্বায়ক অধ্যাপক রকীব আহমদ।

মতবিনিময় সভা শেষে ওবায়দুল কাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুহম্মদ মিজান উদ্দিনের সঙ্গে তাঁর বাসভবনে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন।



সাতদিনের সেরা