kalerkantho

রবিবার । ১২ আশ্বিন ১৪২৭ । ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০। ৯ সফর ১৪৪২

ব্র্যাক-লানসার প্রতিবেদন

পুষ্টিতে কৃষি ও নারী ক্ষমতায়নের প্রভাব

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৫ জুন, ২০১৫ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পুষ্টি কেবল স্বাস্থ্য ইস্যু নয়, কৃষি উৎপাদন ও এর বৈচিত্র্য, নারীর ক্ষমতায়নসহ পরিবারগুলোর আর্থ-সামাজিক বৈশিষ্ট্যেরও প্রভাব এর ওপর রয়েছে। মহাখালীর ব্র্যাক সেন্টারে ব্র্যাক, লানসারসহ অন্যান্য পার্টনারের গবেষণায় প্রাপ্ত ফলাফল প্রকাশ অনুষ্ঠান এবং অভিজ্ঞতা বিনিময় সেমিনারে গতকাল রবিবার এ তথ্য উঠে আসে।

যুক্তরাজ্য সরকারের ডিএফআইডির সহায়তাপুষ্ট আন্তর্জাতিক গবেষণা সংগঠন লানসা (ল্যাভারেজিং এগ্রিকালচার ফর নিউট্রিশন ইন সাউথ এশিয়া) দক্ষিণ এশিয়ার পুষ্টিপরিস্থিতির উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে। লানসার বাংলাদেশি পার্টনার হিসেবে ব্র্যাক এ দেশের কৃষি ও ফুড ভ্যালু চেইন পলিসি বিষয়ে নতুন ধারার গবেষণার উদ্যোগ নিয়েছে। দেশের পুষ্টি পরিস্থিতির উন্নয়নে এই গবেষণা ব্যাপক ভূমিকা রাখবে বলে উদ্যোক্তারা আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

ব্র্যাকের নির্বাহী পরিচালক ড. মুহাম্মাদ মুসার সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. সেলিনা আফরোজা। বিভিন্ন বিষয়ে গবেষণা প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন ব্র্যাকের নির্বাহী পরিচালকের উপদেষ্টা ড. মাহবুব হোসেন। এ ছাড়া ব্র্যাকের গবেষণা ও মূল্যায়ন বিভাগের পরিচালক ড. আবদুল বায়েস আইএফপিআরআইয়ের চিফ অব পার্টি ড. আখতার আহমেদ, ব্র্যাকের নিউট্রিশন কনসালট্যান্ট ড. মাসুদা মোহসেনা, আইএফপিআরআইয়ের কনসালট্যান্ট ড. ফেরদৌসী নাহার বক্তব্য দেন। ড. মাহবুব হোসেনের উপস্থাপিত 'ডাজ এগ্রিকালচার পওমোট ডায়েট ডাইভারসিটি?' শীর্ষক গবেষণা প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, অর্থনীতি ও কৃষি ক্ষেত্রে বাংলাদেশ উল্লেখযোগ্য উন্নতি করেছে। ১৯৭১ থেকে ১৯৮৯ সাল পর্যন্ত জিডিপি ছিল ৩.৫ শতাংশ। নব্বইয়ের দশকে তা বেড়ে হয় ৫ শতাংশ।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা