kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২১ নভেম্বর ২০১৯। ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

নাশকতার মামলায় অভিযুক্ত

মিরসরাই উপজেলা চেয়ারম্যান বরখাস্ত

মিরসরাই (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি   

৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৫ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নাশকতার মামলায় অভিযুক্ত হওয়ায় চট্টগ্রামের মিরসরাই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বিএনপি নেতা নুরুল আমিনকে বরখাস্ত করা হয়েছে। গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় এ-সংক্রান্ত চিঠি চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের হাতে পৌঁছে। বিষয়টি কালের কণ্ঠকে নিশ্চিত করেছেন জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার আসিফ ইকবাল। মিরসরাই উপজেলা প্রশাসনে কর্মরত একজন প্রথম সারির কর্মকর্তা নিজের নাম ও পদবি ব্যবহার না করার শর্তে গতকাল রাতে কালের কণ্ঠকে বলেন, 'বিষয়টি জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে আমরা নিশ্চিত হয়েছি। তবে উপজেলা প্রশাসনের কাছে এখনো দাপ্তরিক কোনো চিঠি আসেনি।'

চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার আসিফ ইকবাল কালের কণ্ঠকে জানান, নুরুল আমিনের বিরুদ্ধে ১০টি মামলা রয়েছে। এর মধ্যে নাশকতার দুটি মামলা আমলে নিয়ে সোমবার স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় থেকে তাঁকে বরখাস্ত করা হয়। বরখাস্তের চিঠি ফ্যাক্সযোগে আজ (গতকাল) সন্ধ্যায় জেলা প্রশাসকের কাছে এসে পৌঁছে।

নুরুল আমিন চট্টগ্রাম উত্তর জেলা বিএনপির সাবেক সহসম্পাদক ও উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক। বর্তমানে তিনি উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য।

জানা গেছে, ২০১৩ সালের শেষের দিকে এবং ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন পর্যন্ত নির্দলীয় নিরেপক্ষ সরকারের দাবিতে বিএনপি নেতৃত্বাধীন জোটের আন্দোলনের সময় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে নাশকতার ঘটনায় আটটি মামলায় আসামি করা হয় নুরুল আমিনকে। নির্বাচনের পর আওয়ামী লীগ জোট সরকার গঠনের পর ২০১৪ সালের ১৯ ফেব্রুয়ারি উপজেলা পরিষদ নির্বাচন হয়। নির্বাচনে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী হিসেবে অংশ নিয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন নুরুল আমিন।

উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে শপথ নেওয়ার পর সর্বশেষ গত ১২ জানুয়ারি হত্যা ও নাশকতার অভিযোগে নুরুল আমিনের বিরুদ্ধে আরো দুটি মামলা করা হয়। নুরুল আমিনের সঙ্গে যোগাযোগের জন্য গতকাল রাতে তাঁর মোবাইল ফোনে একাধিকবার চেষ্টা করা হলেও সেটি বন্ধ পাওয়া যায়।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা