kalerkantho

শনিবার । ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৩০  মে ২০২০। ৬ শাওয়াল ১৪৪১

ব্যক্তিত্ব

১ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ব্যক্তিত্ব

সাঈদ উদ্দীন আহমেদ

ভাষাসংগ্রামী, সাংবাদিক ও লেখক সাঈদ উদ্দীন আহমেদের জন্ম রাজশাহীতে ২২ অক্টোবর ১৯৩১ সালে।

১৯৫০ সালে তিনি রাজশাহী মুসলিম হাই স্কুল থেকে এসএসসি পাস করেন। বায়ান্নর ভাষা আন্দোলনের সময় তিনি রাজশাহী কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র ছিলেন। তখন ভাষা আন্দোলনে রাজশাহীর সর্বস্তরের পেশাজীবী ছাত্র-জনতা অংশ নেন। ভাষার জন্য যাঁরা একত্র হয়েছিলেন, তিনি তাঁদের অন্যতম। ভাষাশহীদদের স্মরণে রাজশাহী কলেজ চত্বরে দেশের প্রথম শহীদ মিনারটি নির্মিত হয়েছিল। ভাষা আন্দোলনে রাজশাহীর সক্রিয় সেনাদের অকাট্য দাবি, দেশের প্রথম শহীদ মিনার ছিল এটিই। দেশ ও মানুষের প্রতি তাঁর ভালোবাসা ছিল অকৃত্রিম। ভাষার জন্য যাঁরা ছিলেন অকুতোভয়, তিনি তাঁদের একজন। এই শহীদ মিনার নির্মাণেও তাঁর বিশেষ অবদান ছিল। এই শহীদ মিনারটি নির্মাণের পর তার গায়ে বিদ্রোহী কবিতার দুটি লাইন লিখে দিয়েছিলেন তিনি। আইনজীবী হিসেবে কাজ শুরু করলেও সাংবাদিক হিসেবেও তিনি কাজ করেন। তিনি রাজশাহী প্রেস ক্লাবের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন। ইত্তেফাক, সংবাদ, ডেইলি পিপল, ডেইলি মর্নিং পোস্ট, অবজারভারসহ বেশ কয়েকটি সংবাদপত্রে কাজ করেছেন তিনি। ভাষাসংগ্রামী সাঈদ উদ্দীন আহমেদ ২০১৪ সালের ১ মার্চ বার্ধক্যজনিত কারণে নানা রোগে আক্রান্ত হয়ে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় চিরবিদায় নেন। রাজশাহী মহানগরীর বড় মসজিদ প্রাঙ্গণে জানাজা শেষে তাঁর লাশ হেতম খাঁ কবরস্থানে সমাধিস্থ করা হয়। তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর। তিনি তিন ছেলে, এক মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে যান।

[উইকিপিডিয়া অবলম্বনে]

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা