kalerkantho

শনিবার। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ৫ ডিসেম্বর ২০২০। ১৯ রবিউস সানি ১৪৪২

ব্যক্তিত্ব

১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ব্যক্তিত্ব

ডেভিড হিলবার্ট

গণিতবিদ ডেভিড হিলবার্টের জন্ম জার্মানের ভেলাউ শহরে ২৩ জানুয়ারি ১৮৬২ সালে। তিনি ক্যোনিগসবার্গ ও হাইডেলবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেন। ১৮৮৫ সালে তিনি পিএইচডি ডিগ্রি লাভ করেন। ১৮৯৫ সালে তিনি গোটিঙেন বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত বিভাগের প্রধান হিসেবে যোগদান করেন এবং ১৯৩০ সালে অবসরগ্রহণের আগ পর্যন্ত সেখানেই কর্মজীবন অতিবাহিত করেন। তাঁকে ঊনবিংশ শতাব্দী ও বিংশ শতাব্দীর প্রথম ভাগের প্রভাবশালী গণিতবিদদের অন্যতম হিসেবে গণ্য করা হয়। তিনি গণিতের বিভিন্ন শাখায় অবদান রেখেছেন। বিশুদ্ধ গণিতের বিভিন্ন শাখা, যেমন—বীজগণিত, সংখ্যাতত্ত্ব, জ্যামিতি, ব্যবকলন সমীকরণসমূহ ও ব্যবকলনীয় বিশ্লেষণ, যুক্তিবিজ্ঞান ও গণিতের ভিত্তি ইত্যাদিতে অবদান রাখেন। তিনি প্রমাণতত্ত্ব ও গাণিতিক যুক্তিবিজ্ঞানের অন্যতম স্রষ্টা এবং গেয়র্গ কান্টরের সেটতত্ত্বের সমর্থক। ১৮৯৯ সালে তিনি গ্রুন্ডলাগেন ডের জিওম্যাট্রিক বা জ্যামিতির মৌলিক ধারণাসমূহ নামের একটি গ্রন্থ রচনা করেন, যাতে উনিশ শতকের শেষে জ্যামিতি অধ্যয়নে যে পরিবর্তনগুলো এসেছিল, তা লিপিবদ্ধ আছে। ১৯০০ সালে তিনি ২৩টি অমীমাংসিত গাণিতিক সমস্যার একটি তালিকা প্রদান করেন, যার নাম হিলবার্টের সমস্যা তালিকা। তালিকাটি বিংশ শতকের গাণিতিক গবেষণার দিকনির্দেশনা করেছে। এর অনেকগুলোর জন্য আজও সমাধান খুঁজে পাওয়া যায়নি। তিনি তাত্ত্বিক পদার্থবিজ্ঞানের ব্যাপারেও আগ্রহী ছিলেন। তিনি ও তাঁর ছাত্ররা কোয়ান্টাম বলবিজ্ঞান ও সাধারণ আপেক্ষিকতা তত্ত্বের ভিত্তিতে ব্যবহৃত গণিত উদ্ভাবন করে গেছেন। তাঁর ও আইনস্টাইনের মধ্যে আলোচনার সূত্র ধরেই ১৯১৫ সালে মহাকর্ষের ক্ষেত্র সমীকরণগুলোর সূত্রায়ন সম্ভব হয়। ১৪ ফেব্রুয়ারি ১৯৪৩ সালে তিনি মারা যান।

 

[উইকিপিডিয়া অবলম্বনে]

 

মন্তব্য