kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৮ জানুয়ারি ২০২০। ১৪ মাঘ ১৪২৬। ২ জমাদিউস সানি ১৪৪১     

ব্যক্তিত্ব

১৪ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ব্যক্তিত্ব

সেলিম আল দীন

নাট্যকার সেলিম আল দীনের জন্ম ফেনী জেলার সোনাগাজীতে ১৯৪৯ সালের ১৮ আগস্ট। তাঁর বাবার নাম মফিজ উদ্দিন আহমেদ ও মা ফিরোজা খাতুন। ১৯৬৪ সালে তিনি মঙ্গলকান্দি মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে এসএসসি এবং ১৯৬৬ সালে ফেনী কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করে ১৯৬৭ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগে ভর্তি হন। রাজনৈতিক কারণে তিনি টাঙ্গাইলের করটিয়া সা’দত বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ থেকে স্নাতকোত্তর এবং পরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাংলায় এমএ সম্পন্ন করেন। কর্মজীবনের শুরুতে তিনি বিজ্ঞাপন সংস্থা বিটপীতে কপিরাইটারের পদে যোগদান করেন। ১৯৭৪ সালে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগে প্রভাষক হিসেবে যোগ দেন। ১৯৮৬ সালে তিনি নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এ দেশের নাট্যশিল্পকে বিশ্ব নাট্যধারার সঙ্গে যুক্ত করার লক্ষ্যে ১৯৮১-৮২ সালে গড়ে তোলেন বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটার। বাংলাদেশের বিচিত্র পেশাজীবী, বাঙালি ও ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর সমাজজীবন ও তাদের সংস্কৃতিকে তিনি নাটকে মহাকাব্যিক ব্যাপ্তি দান করেছেন। তিনি বাংলা নাট্যসাহিত্যে এক নবতর শিল্পরীতি প্রবর্তন করেছেন। তাঁর প্রথম রেডিও নাটক ‘বিপরীত তমসায়’ ১৯৬৯ সালে এবং প্রথম টেলিভিশন নাটক ‘ঘুম নেই’ প্রচারিত হয় ১৯৭০ সালে। প্রথম মঞ্চনাটক ‘সর্পবিষয়ক গল্প’ মঞ্চস্থ হয় ১৯৭২ সালে। তাঁর উল্লেখযোগ্য নাটক—‘কিত্তনখোলা’, ‘কেরামতমঙ্গল’, ‘হাতহদাই’, ‘যৈবতী কন্যার মন’, ‘চাকা’, ‘স্বর্ণবোয়াল’ ইত্যাদি। তিনি বাংলা একাডেমি পুরস্কার, জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার, একুশে পদকসহ নানা পুরস্কার ও সম্মাননায় ভূষিত হয়েছেন। ২০০৮ সালের ১৪ জানুয়ারি তিনি মারা যান।

[বাংলাপিডিয়া অবলম্বনে]

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা