kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৯ নভেম্বর ২০১৯। ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২১ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

ব্যক্তিত্ব

২০ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ব্যক্তিত্ব

সালাহ্উদ্দীন আহমদ

 

শিক্ষাবিদ, মুক্তচিন্তক, ইতিহাসবিদ এ এফ সালাহ্উদ্দীন আহমদের জন্ম তৎকালীন ফরিদপুরে ১৯২০ সালের ২১ সেপ্টেম্বর। তিনি কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইতিহাস বিষয়ে এমএ পাস করেন। এরপর যুক্তরাষ্ট্রের পেনসিলভানিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেন। লন্ডন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তিনি পিএইচডি করেন। ছাত্রজীবনে তিনি সমাজতান্ত্রিক আন্দোলনের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। ১৯৪৮ সালে জগন্নাথ কলেজে প্রভাষক হিসেবে তাঁর কর্মজীবন শুরু করেন। সেখানে কর্মরত অবস্থায় তিনি শিক্ষক ও ছাত্রদের ভাষা আন্দোলনে শামিল হওয়ার জন্য উৎসাহিত করেন। ১৯৫৪ সালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপিত হওয়ার পর তিনি ইতিহাস বিভাগে যোগ দেন। পর্যায়ক্রমে তিনি ওই বিভাগের অধ্যাপক পদে উন্নীত হন। ১৯৭৮ সালে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগদান করেন এবং ১৯৮৪ সালে অবসর গ্রহণ করেন। পরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আরো কয়েক বছর সুপার নিউমারারি অধ্যাপক হিসেবে কাজ করেন। তাঁর প্রকাশিত উল্লেখযোগ্য গ্রন্থগুলোর মধ্যে রয়েছে—সোশ্যাল আইডিয়াস অ্যান্ড সোশ্যাল চেঞ্জ ইন বেঙ্গল : ১৮১৮-১৮৩৫, বেঙ্গলি ন্যাশনালিজম অ্যান্ড দ্য এমারজেন্স অব বাংলাদেশ : অ্যান ইনট্রোডাক্টরি আউটলাইন, হিস্টরি অ্যান্ড হেরিটেজ : রিফ্লেকশনস অন সোসাইটি পলিটিকস অ্যান্ড কালচার অব সাউথ এশিয়া, বাঙালির সাধনা ও বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ, বরণীয় ব্যক্তিত্ব ও স্বাধীন সুহৃদ, উনিশ শতকে বাংলার সমাজচিন্তা ও সমাজ বিবর্তন এবং ইতিহাস ঐতিহ্য জাতীয়তাবাদ গণতন্ত্র। ২০১১ সালে তিনি জাতীয় অধ্যাপক নির্বাচিত হন। তিনি একুশে পদক, স্বাধীনতা পুরস্কারসহ নানা সম্মাননা ও পুরস্কার পেয়েছেন। ২০১৪ সালের ১৯ অক্টোবর তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

[উইকিপিডিয়া অবলম্বনে]

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা