kalerkantho

ব্যক্তিত্ব

১১ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ব্যক্তিত্ব

হুমায়ুন আজাদ

 

কবি, ঔপন্যাসিক, গবেষক ও ভাষাবিজ্ঞানী হুমায়ুন আজাদের জন্ম বিক্রমপুরে ১৯৪৭ সালের ২৮ এপ্রিল। তাঁর বাবার নাম আবদুর রাশেদ এবং মা জোবেদা খাতুন। ১৯৬২ সালে রাঢ়িখাল স্যার জগদীশচন্দ্র বসু ইনস্টিটিউশন থেকে তিনি মাধ্যমিক, ঢাকা কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক, ১৯৬৭ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাংলা সাহিত্যে স্নাতক এবং ১৯৬৮ সালে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন। এডিনবরা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ভাষাবিজ্ঞান বিষয়ে ১৯৭৬ সালে পিএইচডি ডিগ্রি লাভ করেন। ১৯৬৯ সালে তাঁর পেশাগত জীবন শুরু হয় চট্টগ্রাম কলেজে যোগদানের মধ্য দিয়ে। ১৯৭০ সালে তিনি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে এবং ১৯৭২ সালে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রভাষক পদে যোগদান করেন। ১৯৭৮ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলা বিভাগে সহযোগী অধ্যাপক হিসেবে নিয়োগ লাভ করেন এবং ১৯৮৬ সালে অধ্যাপক পদে উন্নীত হন। ১৯৭৩ সালে প্রকাশিত হয় তাঁর প্রথম কাব্য ‘অলৌকিক ইস্টিমার’ এবং প্রবন্ধগ্রন্থ রবীন্দ্র প্রবন্ধ : রাষ্ট্র ও  সমাজচিন্তা। পরে ক্রমান্বয়ে প্রকাশিত হয়েছে তাঁর ভাষাতত্ত্ববিষয়ক গ্রন্থ, সম্পাদিত গ্রন্থ এবং ভাষাবিজ্ঞানবিষয়ক গ্রন্থমালা। তাঁর সাহিত্য সমালোচনা ও মননশীলতার প্রকাশ লক্ষ করা যায় শামসুর রাহমান/নিঃসঙ্গ শেরপা, ভাষা আন্দোলন : সাহিত্যিক পটভূমি, নারী, আমরা কি এই বাংলাদেশ চেয়েছিলাম প্রভৃতি গ্রন্থে। তাঁর উল্লেখযোগ্য উপন্যাস : ছাপ্পান্ন হাজার বর্গমাইল, সব কিছু ভেঙে পড়ে, মানুষ হিসেবে আমার অপরাধসমূহ ইত্যাদি। লাল নীল দীপাবলী, ফুলের গন্ধে ঘুম আসে না, কতো নদী সরোবর, বুকপকেটে জোনাকিপোকা তাঁর শিশুকিশোর গ্রন্থ। তিনি বাংলা একাডেমি পুরস্কারসহ নানা পুরস্কার লাভ করেছেন। ২০০৪ সালের ১১ আগস্ট তাঁর মৃত্যু হয়।

[বাংলাপিডিয়া অবলম্বনে]

মন্তব্য