kalerkantho

শুক্রবার । ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৮ রবিউস সানি ১৪৪১     

ব্যক্তিত্ব

১৯ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ব্যক্তিত্ব

আবু জাফর ওবায়দুল্লাহ

কবি আবু জাফর ওবায়দুল্লাহর জন্ম বরিশালের বাবুগঞ্জে ৮ ফেব্রুয়ারি ১৯৩৪ সালে। তাঁর পুরো নাম আবু জাফর মুহাম্মদ ওবায়দুল্লাহ খান। তাঁর বাবার নাম আব্দুল জব্বার খান। তিনি ময়মনসিংহ জিলা স্কুল থেকে ১৯৪৮ সালে মাধ্যমিক, ১৯৫০ সালে ঢাকা কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক এবং ১৯৫৪ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগ থেকে এমএ পাস করেন। তিনি বাংলাদেশের পঞ্চাশের দশকের একজন মৌলিক কবি। তাঁর দুটি দীর্ঘ কবিতা ‘আমি কিংবদন্তির কথা বলছি’ এবং ‘বৃষ্টি ও সাহসী পুরুষের জন্য প্রার্থনা’ আধুনিক বাংলা সাহিত্যের ভাণ্ডারে অভূতপূর্ব সংযোজন। ১৯৫৪ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগে প্রভাষক হিসেবে তাঁর কর্মজীবন শুরু হয়। ১৯৫৭ সালে অধ্যাপনা পেশা ছেড়ে তিনি যোগ দেন পাকিস্তান সিভিল সার্ভিসে। ১৯৮২ সালে সচিব হিসেবে অবসর নেন এবং মন্ত্রিসভায় যোগ দেন। ১৯৮৪ সালে তিনি যুক্তরাষ্ট্রে রাষ্ট্রদূত হিসেবে যোগ দেন। ১৯৯২ সালে এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলের অতিরিক্ত মহাপরিচালক হিসেবে যোগ দেন বিশ্ব খাদ্য ও কৃষি সংস্থায়। ১৯৯৭ সালে তিনি পরিচালক হিসেবে অবসর নেন। তিনি লোকজ ঐতিহ্যের ভাবনা ব্যবহার করে কবিতা লিখেছেন। প্রকৃতির রূপ ও রঙের বিচিত্রিত ছবি তাঁর কবিতাকে মাধুর্যমণ্ডিত করেছে। তাঁর উল্লেখযোগ্য কাব্যগ্রন্থ সাতনরী হার, কখনো রং কখনো সুর, আমি কিংবদন্তির কথা বলছি, বৃষ্টি ও সাহসী পুরুষের জন্য প্রার্থনা, আমার সময়, মসৃণ কৃষ্ণ গোলাপ প্রভৃতি। তিনি বাংলা একাডেমি পুরস্কার ও একুশে পদকসহ নানা পুরস্কার লাভ করেছেন। ২০০১ সালের ১৯ মার্চ তিনি মারা যান।

[উইকিপিডিয়া অবলম্বনে]

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা